মেইন ম্যেনু

প্রধানমন্ত্রী লন্ডন পৌঁছেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রের সফর শেষে দেশে ফেরার পথে নিউইয়র্ক থেকে লন্ডন পৌঁছেছেন।

প্রধানমন্ত্রী প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, বৃটিশ এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা লন্ডনের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত ৮টা ১০ মিনিটে হিথ্রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. আবদুল হান্নান বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান। খবর বাসসের।

বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হোটেল ক্ল্যারিজে নিয়ে যাওয়া হয়। লন্ডনে সংক্ষিপ্ত সফরকালে তিনি সেখানে অবস্থান করবেন।

প্রধানমন্ত্রীকে শুক্রবার বিকেলে লন্ডনের একটি হোটেলে সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী লন্ডনের স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৩৫ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ালাইন্সের একটি ফ্লাইটে দেশের উদ্দেশে লন্ডন ত্যাগ করবেন।

প্রধানমন্ত্রী সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সংক্ষিপ্ত যাত্রা বিরতির পর শনিবার বাংলাদেশ সময় ১টা ৩০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

নিউইয়র্কে অবস্থানকালে শেখ হাসিনা ৩০ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭০তম অধিবেশনের সাধারণ বিতর্কে তার দেশের বিবৃতি পাঠ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ২৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ পরিবেশ কর্মসূচির (ইউনেপ) নির্বাহী পরিচালক আচিম স্টেইনারের কাছ থেকে মর্যাদাপূর্ণ ‘চ্যাম্পিয়নস অব দ্য আর্থ এ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ করেন।

শেখ হাসিনা ২৬ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) মহাসচিব হুলিন ঝাওয়ের কাছ থেকে ‘আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কার’ গ্রহণ করেন।

তিনি ২৮ সেপ্টেম্বর অন্যান্য রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সঙ্গে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭০তম অধিবেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

সে দিন তিনি জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এবং রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সম্মানে আয়োজিত ভোজসভায় যোগ দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এবং নেদারল্যান্ডের রাণী ম্যাক্সিমাসহ বেশ কয়েকটি রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের সঙ্গে বৈঠক করেন।

এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউইয়র্কে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তৃতা দেন।

তিনি ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭০তম অধিবেশনে যোগদানের জন্য নিউইয়র্কে পৌঁছান।



« (পূর্বের সংবাদ)