মেইন ম্যেনু

প্রবাসী কর্মীদের ইউনিয়নভিত্তিক ডাটাবেজ হচ্ছে

দক্ষ জনশক্তি গড়ার পাশাপাশি প্রবাসে কর্মরত এবং প্রবাস ফেরত কর্মীর ইউনিয়নভিত্তিক ডাটাবেজ প্রণয়ন করবে সরকার।

বুধবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি কুমিল্লায় কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিদর্শনকালে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অটোমেটিভ, জেনারেল ইলেকট্রিক্যাল ওয়ার্কসপ, জেনারেল ইলেক্ট্রনিক্স, রেফ্রিজারেশন ও এয়ার কন্ডিশনিং, জেনারেল মেকানিক্স, সিভিল কন্সট্রাকশন, প্লাম্বিং ও পাইপ ফিটিং, উড ওয়ার্কিং, ইলেকট্রিক্যাল মেইনটেন্যান্স ওয়ার্কসপ এবং ওয়েল্ডিং অ্যান্ড ফেব্রিকেশন বিভাগ পরিদর্শন করেন।

মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী বলেন, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের ডাটাবেজ করে কোন দেশে কারা কর্মরত আছে তা নিয়মিত হালনাগাদ করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে দক্ষ জনবল তৈরির লক্ষ্যে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) নির্মাণের নির্দেশনা প্রদান করেছেন। এ লক্ষ্যে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে উপজেলা পর্যায়ে ও টিটিসি নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টি করাই হলো টিটিসি সমূহের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসমূহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

মন্ত্রী জানান, প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশিদের মধ্যে কেবল কুমিল্লা জেলায় প্রবাসীর পরিমাণ ৬ লাখ ৩৫ হাজার ৬৯০ জন। এটি মোট প্রবাসীর শতকরা ১১ ভাগ। নিঃসন্দেহে কুমিল্লা জেলার জনগণের বৈদেশিক কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভূমিকা প্রশংসার দাবিদার।

এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, অভিবাসন প্রক্রিয়াকে দালালচক্র মুক্ত করতে স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে ইউনিয়ন পর্যায়ে মোটিভেশনাল মিটিং করতে হবে।

সভায় কুমিল্লা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম উক্ত কেন্দ্রের সার্বিক বিষয়ে একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজা। এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব বেগম শামছুন নাহার, কুমিল্লা জেলার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



« (পূর্বের সংবাদ)