মেইন ম্যেনু

রাণীনগরে বিয়ের আসর থেকে বরের পলায়ন!

প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের অভিসাফের হাত থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

নওগাঁর রাণীনগরে বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে গেল বর। বাল্য বিয়ে নামক অভিসাফের হাত থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী (১৬)। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সময় ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় বর। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভেটি গ্রামে গত শুক্রবার দুপুরে।

স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামের আবুল কালাম আজাদের মেয়ে ৮ম শ্রেনী পড়–য়া ছাত্রীর সাথে পাশবর্তি যাত্রাপুর গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে জেমস (১৭) এর সাথে বিয়ে ঠিক হয়। বিয়ের দিন নির্ধারন করা হয় শুক্রবার দুপুরে। সেই মোতাবেক উভয় পক্ষে আতয় স্বজন,বন্ধু-বান্ধবদের দাওয়াত করে। ক’দিন আগে থেকেই দাওয়াতি লোকজন আসতে থাকে। ওই দিন সকাল থেকেই চলছিল নানা আয়োজন ও রান্না-বান্নার কাজ।

দুপুর হতেই কনে বাড়ীতে বর ও বরযাত্রী উপস্থিত হয় । বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হওয়ার আগেই উপস্থিত হয় ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় আদালতের উপস্থিতি টের পেয়েই দৌঁড়ে পালিয়ে যায় বর ও বরযাত্রীরা।

এসময় কণে ও কণের লোকজনও পালিয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত নির্বাহী কর্মকর্তা বর-কণের কাউকে না পেয়ে স্থানীয় লোকজনদের ডেকে বিয়ে না দিতে অনুরোধ করে চলে আসেন। এব্যাপারে নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম পাটওয়ারী জানান,বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে আগেই বর পক্ষকে মোবাইলে নিষেধ করেছিলাম। তার পরেও তারা বিয়ে সম্পন্ন করার চেষ্টা করেছিল। শেষ পর্যন্ত তা সফল হতে পারেনি।