মেইন ম্যেনু

‘প্রশাসন ও ইসির সহায়তায় প্রহসনের নির্বাচনে সরকার’

প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সহায়তায় সরকার প্রহসনের নির্বাচনী প্রকল্প হাতে নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মতো শুরু হওয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রভাব বিস্তারের বিষয়ে তিনি এই ধরনের মন্তব্য করেন।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানানো শেষে গণমাধ্যমের সামনে তিনি এ কথা বলেন।

‘জিয়া পরিষদ’ নামের একটি সংগঠনের ২৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির নেতাদের নিয়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতার সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান তিনি।

মঙ্গলবার দেশের ৭১৭টি ইউনিয়ন পরিষদে প্রথম দফার ভোট গ্রহণ চলছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার দেশবাসীকে বোকা বানাতে চায়। সেজন্য প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের সহযোগিতায় প্র্রহসনের নির্বাচনী প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শাসকদল প্রভাব বিস্তার করবে জেনেও বিএনপি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে অংশগ্রহণ করেছে বলেও জানান তিনি।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, বিএনপি আগেই জানত, সরকার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করে ফলাফল তাদের পক্ষে নিয়ে নেবে। তা স্বত্বেও বিএনপি এই নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। উদ্দেশ্য, গণতান্ত্রিকভাবে সরকারের কর্মকা-ের প্রতিবাদ জানানো।

এদিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীও ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে ইউপি নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ করেছেন।

তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গায় ক্ষমতাসীনরা কেন্দ্র দখল করে সিল মারার মহোৎসবে মেতেছে। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতা এবং সরকারের প্রতি আনুগত্য থাকার নীতির কারণেই ভোটকেন্দ্রগুলোতে জালিয়াতির ঘটনা ঘটছে।

একইসঙ্গে শাসকদলের নেতা-কর্মীরা বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রার্থী ও নেতা-কর্মীদের ওপর সহিংস আচরণ করছে বলেও দাবি করেন বিএনপির এই নেতা।