মেইন ম্যেনু

প্রস্তুতি প্রায় শেষ, অপেক্ষায় শহীদ মিনার

দুয়ারে একুশ। আর মাত্র একদিন পরেই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে জাতি স্মরণ করবে ভাষা শহীদদের। নানা রঙের ফুলে সুভাসিত হবে শহীদ বেদী। শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও সাজানোর প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে।

শহীদ মিনার এলাকা ঘুরে দেখা যায়, অংকনের কাজ শেষ করেছে চারুকলার ছাত্র-ছাত্রীরা। পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতায় ব্যস্ত কর্মীরা। কেউ হোসপাইপে পানি ছেটাচ্ছেন, কেউ ঝাড়ু দিচ্ছেন, কেউ রয়েছেন তদারকিতে। ইতোমধ্যে ৮০ থেকে ৮৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। শনিবারের মধ্যে প্রস্তুতি কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে আশা কর্তৃপক্ষের।

এ বছরও যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে দিবসটি পালনের জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। অমর একুশে উদযাপন কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি দিবসটি সুষ্ঠুভাবে পালনের বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের ভাষা শহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর ও সংগ্রহশালার উদ্যোগে দুইজন ভাষা সংগ্রামীকে সম্মাননা দেওয়ার মধ্যদিয়ে বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৬টায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের নেতৃত্বে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে প্রভাতফেরী, আজিমপুর কবরস্থান হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ।

বাদ জোহর অমর একুশে হলে শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত; বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদুল জামিয়া, সকল হলের মসজিদ এবং বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকার মসজিদসহ অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে ভাষা শহীদদের রুহের মাগফেরাত ও শান্তি কামনা করে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় সংগীত বিভাগের উদ্যোগে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র মিলনায়তনে পরিবেশিত হবে ভাষা ও দেশের গান।

ভাষা শহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর ও সংগ্রহশালার উদ্যোগে আয়োজিত ভাষা আন্দোলনভিত্তিক স্মৃতিচারণ, পুস্তক, আলোকচিত্র ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী চলবে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এবং ২৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা।

এদিকে শহীদ মিনার এলাকায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়ানোর জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয় প্রক্টর ড. এম আমজাদ আলী বলেন, ‘দিবসটিকে ঘিরে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘শহীদ মিনার এলাকায় নিরাপত্তার বিষয়ে শনিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে ক্যাম্পাস এলাকায় কোনো বহিরাগত প্রবেশ করতে পারবে না। এছাড়া পলাশী, আজিমপুর, চানখারপুল, হাইকোর্ট মোড়, ঢাকা মেডিক্যালসহ পুরো শহীদ মিনার এলাকায় থাকবে বিশেষ নিরাপত্তা।