মেইন ম্যেনু

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সিসি ক্যামেরা

‘ক্লাস ফাঁকি দিয়ে এখন আমরা আর দুষ্টুমি করতে পারি না। দুষ্টুমি করলেই ধরা পড়ে যাই। মিথ্যা বলে আর পার পাওয়া যায় না। হেড স্যার ক্লাসে ক্যামেরা ফিট করে দিয়েছেন।’ হাসিমাখা কণ্ঠে এ কথাগুলো বলছিল কাচুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নাসরিন আক্তার তমা।

তার মত একই সুরে অন্য শিক্ষার্থীরাও জানাচ্ছিল তাদের ভিন্নধর্মী আক্ষেপের কথা। তবে শিক্ষার্থীরা তাদের শ্রেণীকক্ষ ডিজিটাল হওয়ায় বেজায় খুশি। সম্প্রতি চুনারুঘাটের কাচুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঁচটি শ্রেণীকক্ষে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

এই ক্যামেরার রেকর্ড পর্যালোচনা করে নেওয়া হচ্ছে শিক্ষাবান্ধব পদক্ষেপ। প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে গত ১৭ আগস্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও অভিভাবকদের আর্থিক সহায়তায় শ্রেণীকক্ষে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়। এখন ওই ক্যামেরার মাধ্যমে শিক্ষকদের পাঠদানসহ ছাত্রছাত্রীদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাজ্জাত হোসেন বলেন, সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে চুনারুঘাটের কাচুয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়টি অনন্য নজির স্থাপন করল।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার মান উন্নয়নে ওই ক্যামেরা যুগান্তকারী ভূমিকা রাখবে। প্রধান শিক্ষক জালাল উদ্দিন বলেন, শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে নিজের শ্রেণীকার্য নিজে বা অন্য সহকর্মীরা দেখে তা থেকে আরও উন্নয়ন ঘটাতে সক্ষম হবেন।

অভিভাবক হাজি ইয়াকুব মিয়া বলেন, এতদিন জানতাম, নিরাপত্তার কারণে সরকার বিভিন্ন অফিসে সিসি ক্যামেরা লাগাত। এখন সে ক্যামেরা স্কুলে। বেশ ভালো লাগলো এসব দেখে।