মেইন ম্যেনু

প্রীতির স্বপ্ন ভেঙে দিলেন ধোনিরা

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালিক প্রীতি জিনতার স্বপ্ন ভেঙে দিলেন ধোনিরা। পুনের কাছে অসহায় আত্মসমর্পন করলো কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব! টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৭৩ রানে অলআউট হওয়ার পর ধোনি-স্মিথদের কাছে ৯ উইকেটে বিধ্বস্ত হয়েছে প্রীতি জিনতা-গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ১২ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পুনে। ফলে, পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেই শেষ চার নিশ্চিত করলো পুনে। বুধবার প্রথম কোয়ালিফায়ারে মুম্বাইর মুখোমুখি হবে তারা।

হারলেই বিদায়। জিতলে উঠে যাবে শেষ চারে। এমনই সমীকরণ সামনে নিয়ে, ম্যাচটাকে ‘ফাইনাল’ বানিয়ে ফেলেছিল পাঞ্জাব এবং পুনে। মাঠে নামার আগেই পরিণত হয়েছিল

একটি শ্বাসরূদ্ধকর ম্যাচে। কিন্তু পুনে মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়শন মাঠে খেলতে নেমে পুনের সামনে বিধ্বস্ত হলো পাঞ্জাবের কিংসরা।

ম্যাক্সওয়েলদের ছুড়ে দেয়া ৭৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পুনে শুধুমাত্র রাহুল ত্রিপাথির উইকেটটি হারিয়েছে। ২০ বলে ২৮ রান করে অক্ষর প্যাটেলের বলে বোল্ড হয়ে যান ত্রিপাথি। দলীয় ৪১ রানে ১ উইকেট পড়ার পর বাকি পথটা রাহানে এবং স্মিথের ব্যাটে স্বচ্ছন্দেই পাড়ি দেয় পুনে। ৩৪ বলে ৩৪ রানে রাহানে এবং ১৮ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন স্মিথ।

টস জিতেছিলেন পুনের অধিনায়ক স্টিভেন স্মিধ। তিনি ব্যাট করার জন্য আমন্ত্রণ জানান গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে। ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই মার্টিন গাপটিলের উইকেট হারায় পাঞ্জাব। এরপর ঋদ্ধিমান সাহা কিংবা শন মাশরা চেষ্টা করেছিলেন; কিন্তু ড্যান ক্রিশ্চিয়ান, শার্দুল ঠাকুররা এই দুই ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দিলে যেন মড়ক লাগে পাঞ্জাবের ইনিংসে।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়তে থাকে। অক্ষর প্যাটেল সর্বোচ্চ ২২ রান করেন। তার চেষ্টাও বৃথা হয়ে যায় ক্রিশ্চিয়ানের বলে আউট হওয়ার পর। ১৩ রান করেন ঋদ্ধিমান সাহা। ১০ রান করে করেন শন মার্শ এবং সপ্নিল সিং। বাকিরা দুই অংকের ঘরই ছুঁতে পারেননি।

শেষ পর্যন্ত ১৫.৫ ওভারে ৭৩ রান তুলতেই অলআউট পাঞ্জাব। শার্দুল ঠাকুর একাই নেন ৩ উইকেট। ২ উইকেট করে নেন জয়দেব উনাড়কট, অ্যাডাম জাম্পা এবং ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ান।






মন্তব্য চালু নেই