মেইন ম্যেনু

প্রেমিকাসহ সিনেমা দেখতে গিয়ে দারুণ বিপদে পড়েছিলেন সচিন?

ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তী সচিন টেন্ডুলকার তার প্রেমিকা অঞ্জলীকে নিয়ে একবার সিনেমা দেখতে গিয়ে মহা-বিপদের পড়েছিলেন। যদিও সিনেমা দেখতে যেতে চাইছিলেন না তিনি। কিন্তু প্রেমিকার পীড়াপিড়িতে যেতে হয়েছিল।

বহুদিন আগের কথা সচিন টেন্ডুলকর তখন ভীষণ জনপ্রিয়। বাড়ির বাইরে বেরোতে পারেন না। বেরোলেই তার ভক্তরা ঘিরে ধরতেন মাস্টার ব্লাস্টারকে। ভক্তদের অত্যাচারের ভয়ে সচিন খুব একটা বেরোতেনও না। একবার ‘রোজা’ ছবি দেখতে গিয়ে দারুণ বিপদে পড়ে গিয়েছিলেন মুম্বাইকর। তা-ও আবার অঞ্জলির পীড়াপিড়িতে সিনেমা দেখতে রাজি হয়েছিলেন সেদিন। সেই সময় সচিন ও অঞ্জলির মধ্যে গভীর প্রেম চলছে।

‘রোজা’ সেই সময় সুপারহিট। সচিন গিয়েছেন সেই সিনেমা দেখতে। সঙ্গে রয়েছেন অঞ্জলি ও তার বান্ধবীরা। সচিন অবশ্য অঞ্জলিকে আগেই বলেছিলেন, তার পক্ষে সিনেমা হলে বসে সিনেমা দেখাটা চাপের ব্যাপার। কারণ মাস্টার ব্লাস্টারের জনপ্রিয়তা সেই সময়ে তুঙ্গে। ভক্তরা চিনে ফেললে তিনি মবড হয়ে যেতে পারেন। কিন্তু অঞ্জলি সেই সব অজুহাতে কর্ণপাত করেননি।

শেষ কালে অঞ্জলির চাপে রাজি হয়ে যান সচিন। নিরুপদ্রবে যাতে সিনেমা দেখতে পারেন, সেই জন্য অন্য উপায় বের করলেন সচিন। কালো চশমা পরে, দাড়ি ঝুলিয়ে সিনেমা হলে ঢুকে পড়লেন মাস্টার। ভালই উপভোগ করছেন ‘রোজা’।

বিরতির সময় একটা কাণ্ড ঘটল। চোখ থেকে হঠাৎই তার খুলে পড়ল চশমা। কাঁচ গেল ভেঙে। খুব বিশ্রী ব্যাপার। প্রমাদ গুনতে শুরু করলেন সচিন। সিনেমা দেখতে হাজির দর্শকরা না আবার চিনে ফেলেন তাকে। তাহলেই তো সর্বনাশ। এমন সময়ে সচিনের দাড়িও গেল খুলে। বিপদ আসন্ন বুঝতে পেরে সচিন ও অঞ্জলি সিনেমা হল থেকে পালালেন।