মেইন ম্যেনু

প্রেমিকের মুণ্ডু কেটে গরম জলে সেদ্ধ করল প্রেমিকার পরিবার!

এক যুবককে খুন করে তাঁর মুণ্ডু কেটে গরম জলে সিদ্ধ করা হচ্ছিল। এ রকমই একটি দৃশ্য ধরা পড়ল উত্তরপ্রদেশের আজমগড়ে। এ রকম ভয়ানক দৃশ্য দেখে পুলিশও বেশ চমকে যায়।

পুলিশি তদন্তে জানা গিয়েছে এটি একটি প্রেমঘটিত কারণেই খুন। গত শুক্রবার মোদস্সির নামের ওই যুবক বাড়ি থেকে বেরোনোর পর আর ফিরে না আসায় পরিবারের লোকেরা খোঁজখবর চালাতে থাকেন। কিন্তু কোথাও তাঁর হদিস পাননি তাঁরা। অবশেষে পুলিশের দ্বারস্থ হয় মোদস্সিরের পরিবার। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে মোদস্সিরের সঙ্গে পাশের গ্রামেরই একটি মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

খোঁজ নিয়ে পুলিশ যখন ওই মেয়েটির বাড়িতে পৌঁছে তল্লাশি শুরু করে, তখন ওই ভয়ানক দৃশ্য চোখে পড়ে তাদের। এক পুলিশকর্মী জানান, তাঁরা যখন তল্লাশি চালাচ্ছিলেন, তখন একটি ঘরের কোণায় একটা বড় পাত্রে গরম জল ফোটানো হচ্ছিল। উঁকি মারতেই দেকা যায় তার মধ্যে একটি কাটা মুণ্ডু। সেটা জলে সেদ্ধ করা হচ্ছে। আর তার কয়েক হাত দূরেই একটি ছেলের আধপোড়া মুণ্ডুহীন দেহ পড়ে রয়েছে। পুলিশ এই ঘটনায় তিন জনকে গ্রেফতার করেছে।

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের অনুমান, মোদস্সিরকে মেয়েটির ঘরে ডাকা হয়। তার পর তাঁকে খুন করে দেহ লোপাটের জন্য পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু সেই কাজে ব্যর্থ হওয়ায় অভিযুক্তরা তাঁর মুণ্ডু কেটে সেটাকে জলে সেদ্ধ করে। যাতে দেহটা কেউ শনাক্ত করতে না পারে।