মেইন ম্যেনু

প্রেমিক রাজি না হওয়ায় দেশকে গুডবাই বললেন নার্গিস, বিপদে প্রযোজকরা

দীর্ঘদিন উদয় চোপড়ার সাথে চুটিয়ে প্রেম করেছেন বলিউডের বিতর্কিত মডেল ও অভিনেত্রী নার্গিস ফাখরি। কিন্তু সম্প্রতি তার প্রেমিক নাকি তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছেন। আর এতেই ভেঙে পড়েছেন ফাখরি।

এদিকে প্রেমিকের এমন সিদ্ধান্তে রাগে-দুঃখে নার্গিস ফাখরি শুটিং ফেলে দিয়ে দেশ ছেড়ে তার হোমটাউন নিউইয়র্কে চলে গিয়েছেন। আর এতে করে দারুণ বিপাকে পড়েছেন প্রোডিউসারা। অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, এই মানসিকতায় কিছুতেই কাজ করতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন নার্গিস।

জানা গেছে, নার্গিসের এই সিদ্ধান্তে প্রথম ধাক্কাটা লাগে আজহার টিমের। নার্গিস তাদের জানায়, গুরুতর আহত হওয়ায় তিনি তার সদ্য প্রকাশিত ফিল্মের প্রমোশনে যেতে পারবেন না।

এদিকে একটি সূত্র জানিয়েছে, ‘দিন দুয়েক আগেই দেশ ছেড়েছেন নার্গিস। আজহার, ‘হাউসফুল থ্রি’ ও ‘অসমাপ্ত ব্র্যাঞ্জোর’ কাজ মাঝপথে ফেলেই নিউ ইয়র্ক পাড়ি দিয়েছেন তিনি।’

নার্গিসের ঘনিষ্ঠ এক বন্ধুর সূত্রে জানা গিয়েছে, ‘নার্গিস জানায় ওর নার্ভাস ব্রেকডাউন হয়েছে। ও বলেছে, ও কাজ করার মতো পরিস্থিতিতে নেই। দেশ ছেড়ে চলে যাওয়াটাও তার কাছে খুব জরুরি।

‘ব্যাঞ্জোর’ প্রযোজকদের ও জানিয়েছে, ফিরে এসে তাদের সঙ্গে ডেট অ্যাডজাস্ট করে নেবে।’ প্রায় ৯৭% কাজ শেষ হয়ে যাওয়া প্রোযোজকরা নার্গিসের এমন আচমকা সিদ্ধান্ত মাথার চুল ছিঁড়ছেন। ব্যক্তিগত জীবনের ক্ষত মেরামতের জন্য তার দু-এক মাস সময় চাই বলে জানিয়েছেন নার্গিস।

একটি সূত্রের দাবি, ‘উদয় চোপড়ার সঙ্গে বিয়ের কথা ঘোষণার জন্য একেবারে তৈরি ছিল নার্গিস। তবে, উদয় নিজের সিদ্ধান্ত বদলানোয় ও ভেঙে পড়ে। একসময় উদয় নার্গিসকে বিয়ের জন্য উঠেপড়ে লাগলেও, কেরিয়ার ও হলিউড ফিল্মে ফোকাস করার জন্য তখন বিয়েতে রাজি ছিল না নার্গিস।’