মেইন ম্যেনু

প্রেমিক হিসেবে ভালো নয় পেশীবহুল পুরুষ!

বিশ্বজোড়া পুরুষেরা পেশীবহুল, ফিট শরীর তৈরি করার জন্য উন্মুখ থাকেন। এর মূল কারণ হলো, নারীরা পছন্দ করেন পেশীবহুল শরীরের পুরুষ। কিন্তু ইউনিভার্সিটি অফ ওয়েস্টমিন্সটারের একটি গবেষণা বলছে, এমন পেশীবহুল, শক্তিশালী গড়নের পুরুষেরা নাকি প্রেমিক হিসেবে মোটেই ভালো নয়!

এই গবেষণা করা হয় ৩২৭ জন ব্রিটিশ পুরুষের ওপর। এদের এক তৃতীয়াংশের বেশি ছিলেন সিঙ্গেল। গবেষণা থেকে দেখা যায়, মানুষটি যতো বেশি পেশীবহুল, নারীর প্রতি তার মনোভাব তত বৈষম্যপুর্ণ এবং আক্রমণাত্মক।

গবেষণায় বলা হয়, চিরাচরিত ধ্যানধারণার কারণে নারীর প্রতি পুরুষের এই বৈষম্যপুর্ণ আচরণ দেখা যায়। যারা লিঙ্গবৈষম্য দূর করার পক্ষপাতি নন, এমন পুরুষেরাই সাধারণত পুরুষসুলভ শরীরের অধিকারী হবার প্রতি বেশি আগ্রহী থাকেন। অন্যভাবে বলা যায়, তারা “পুরুষসুলভ” হবার ইচ্ছে থেকেই এমন পেশীবহুল শরীর গড়ে তোলেন কারণ তাদের মাঝে এক চিন্তা করে নারীদের তুলনায় পুরুষ শ্রেষ্ঠ।

গবেষকেরা দাবি করেন, যেসব পিতৃপ্রধান সমাজে পুরুষের আধিপত্য কমিয়ে নারীপুরুষের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা হচ্ছে, সেখানে পুরুষ নিজের পৌরুষ জাহির করার জন্য এমন পেশীবহুল শরীর তৈরি করার প্রতি আগ্রহী হয়। আরও দেখা যায়, যেসব পুরুষের আশেপাশে ক্ষমতাবান নারী আছেন, তারা নিজেদের ক্ষমতা নিয়ে শংকিত থাকেন এবং নিজের পৌরুষ ফলাতেই এমন শরীর তৈরি করেন। এমন পুরুষ যে প্রেমিক হিসেবে ভালো হবে না তা বলাই বাহুল্য।

গবেষণাটি যদিও আন্তর্জাতিক পরিসরে করা হয়নি এবগ্ন খুব কম মানুষের ওপর গবেষণা করা হয়, কিন্তু এর ফলাফল দেখে মনে হয় তা সঠিক। আপনার অভিজ্ঞতা কী বলে, একেবারে পেটা শরীরের পুরুষ প্রেমিক হিসেবে ভালো, না খারাপ?