মেইন ম্যেনু

প্রেমের বিতর্কে মেয়েদের ধরাশায়ী করল ছেলেরা

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) প্রেমের বিতর্কে মেয়েদের ধরাশায়ী করেছে ছেলেরা। বিশ্ব ভালবাসা দিবস উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ে এক প্রীতি বিতর্কে ছেলেরা তাদের যুক্তির শানে মেয়েদের পরাজিত করে।

বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় ভালবাসা দিবস উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হলের সামনে পেয়ারা বাগানে ‘বিশ্বায়ন প্রেমকে পণ্যে পরিনত করেছে’ শীর্ষক এক প্রীতি বিতর্ক প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি এ প্রীতি বিতর্কের আয়োজন করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়াউর রহমান হলেল ছেলেরা বিতর্ক বিষয়ের পক্ষে এবং ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের মেয়েরা এর বিপক্ষে অংশগ্রহণ করে। বিতর্কিত বিষয়ের পক্ষে বলতে গিয়ে ছেলেরা বলেন, বিশ্বায়নের ফলে প্রেমের সম্পর্কে কাজে লাগিয়ে বিজ্ঞাপন তৈরি করা হয় যা প্রেমকে পণ্যে পরিনত করেছে।

বিশ্ব সংস্কৃতির অবাধ প্রবাহের ফলে ভালবাসার বহি:প্রকাশ প্রায় বাধ্যতামূলক হয়ে গেছে। যা বলতে গেলে প্রেমকে পণ্যে পরিনত করেছে। প্রেমের তথা নারী-পুরুষের পারস্পারিক সম্পর্কের ভিডিও চিত্র ধারণ করে পর্ণ সাইটগুলো রমরমা ব্যবসা করছে যা প্রেম পণ্যে পরিনত হবার একটি প্রকৃষ্ট উদাহরণ। অন্যদিকে বিপক্ষে বলতে গিয়ে মেয়েরা বলেন, প্রেমকে মধুর করেছে বিশ্বায়ন। এর ফলেই প্রেমের সম্পর্ক সুদৃঢ় হয়েছে। মানুষের প্রেমানুভুতি প্রকাশে ভ’মিকা রাখছে বিশ্বায়ন যা মেয়েরা তাদের যুক্তিতে তুলে আনেন। বিতর্ক শেষে কন্ঠভোটে ছেলেরা জয় লাভ করে। জিয়াউর রহমান হলের মুসা বিন আয়াতুল্লাহ সেরা বিতার্কিক মনোনীত হন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ডিবেটিং সোসাইটির বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি ইমামুল হাসান আদনান, প্রেস ক্লাবের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন, বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি আনিকা তাবাচ্ছুম, জিয়া হল সভাপতি আশরাফুল আলম সিদ্দিকী মারুফ, সাদ্দাম হোসেন হল সভাপতি সাইফুল ইসলাম প্রমূখ। বিতর্কে বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন হাসনাত আসাদুজ্জামান, দেলোয়ার হোসেন আনন্দ, ইসমেত জেরিন বিনতে নিজাম। সংসদ পর্যবেক্ষকের ভ’মিকায় ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিয় সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মো. আসাদুর রহমান।

বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি ইমামুল হাসান আদনান বলেন, ‘এটি একটি প্রীতি বিতর্ক ছিল। তাই কোনো দলকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়নি। তবে কন্ঠভোটে ছেলেরা জিতেছে।’