মেইন ম্যেনু

প্রেম সংক্রান্ত জের : কমলগঞ্জে যুবককে পিটিয়ে হত্যা ॥ আহত ১ ॥ ৬ জন গ্রেফতার

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে রেজাক মিয়া (৩৫) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় সঙ্গী সাইফুল ইসলাম (২৮)কে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাত ১১টায় উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের ছনগাঁও গ্রামে। যুবককে হত্যার অভিযোগে পুলিশ ৬ গ্রামবাসীকে আটক করেছে। এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদশর্ন করেছেন।

জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের পূর্বজালালপুর গ্রামের রোশন আলীর ছেলে সাইফুল ইসলামের সাথে ছনগাঁও গ্রামের কদর আলীর মেয়ে নাসিমা বেগম (২০) এর সাথে প্রেম ছিল। সোমবার রাত ১০ টায় প্রতিবেশী রেজাক মিয়াকে নিয়ে সাইফুল ইসলাম প্রেমিকা নাসিমা বেগম (২০) এর সাথে দেখা করতে বাড়িতে যায়। এ সময় মেয়েটির বাবা কদর আলী ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন জড়ো হয়ে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে রেজাক আলী ও সাইফুলকে মারপিট করে গুরুতর আহত করে রাস্তায় ফেলে রাখে।
খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই লিটন চন্দ্র পালের নেতৃত্বে স্থানীয় পথচারীদের সহযোগীতায় আহত যুবক রেজাক ও সাইফুলকে উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসলে সোমবার দিবাগত রাত ২.৩০ ঘটিকায় কর্তব্যরত ডাক্তার রেজাক মিয়া মৃত ঘোষনা করে। অপর আহত সাইফুল ইসলাম এর অবস্থা আশংকাজনক হলে রাতেই তাকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ দিকে ঘটনা সাথে জড়িত থাকায় অভিযোগে ছনগাঁও গ্রামে মেয়ের পিতা কদর মিয়া (৬০), তরিক মিয়া (৫৫), করিম হোসেন (২৮), সালাউদ্দিন (৩০), কবির হোসেন (৩৮) ও জয়নাল মিয়া (৩৮) কে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ আটক করেছে।

এ ঘটনায় নিহত রেজাকের স্ত্রী জাহানারা বেগম বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে কমলগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি রিবাজ করায় মঙ্গলবার দুপুরে মৌলভীবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আশরাফুল ইসলাম, কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) বদরুল হাসানসহ উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

আদমপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. সাব্বির আহমদ ভূঁইয়া বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। এটা পরিকল্পিতভাবে হত্যাকান্ড বলে ধারনা।
এ ব্যাপারে মৌলভীবাজার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদশন করেছি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ৬ জন আসামীকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি গুরুত্বের সাথে তদারকি করা হচ্ছে।