মেইন ম্যেনু

‘প্রেসিডেন্ট হলে ট্রাম্পের কথা নাও শুনতে পারে সেনাবাহিনী’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হলে দেশটির সেনাবাহিনী তার কথা নাও শুনতে পারে। এমনটাই জানিয়েছেন সাবেক জেনারেল এবং ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সি এ্যান্ড দ্য সেন্ট্রাল ইন্টিলিজেন্স এজেন্সির প্রধান মিখায়েল হেইডেন।

তিনি এ সম্পর্কে বলেন, ‘নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির মাধ্যমে নভেম্বরের আসন্ন নির্বাচনে জনগণের ভোটে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হলে ট্রাম্পের আদেশ-নিষেধ নাও মানতে পারে দেশের সেনাবাহিনী।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্প যে ধরনের ভাষা ব্যবহার করছেন প্রেসিডেন্ট হিসেবেও যদি ঠিক একই ভাষা ব্যবহার করেন তা নিয়ে আমি সত্যিই খুব উদ্বিগ্ন।’

নির্বাচনে জয়ী হলে ট্রাম্প সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীদের নতুন নতুন কৌশলে নির্যাতনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন। এছাড়া মার্কিন সেনাবাহিনীকে সন্ত্রাসীদের পরিবারের সদস্যদের হত্যার নির্দেশ দেয়া হবে বলেও হুশিয়ার করেছেন ট্রাম্প।

জেনারেল হেইডেন জেব বুশের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীর প্রচারণার সময় উপদেষ্টা হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প যদি সেনাবাহিনীকে এ ধরনের গর্হিত কাজের জন্য নির্দেশ দেন তবে তারা এই আদেশ অমান্য করতে পারে।’

হেইডেন আরো বলেন, ‘আপনাকে বেআইনী আদেশ মানতে বাধ্য করা যাবে না। তাছাড়া ট্রাম্পের কিছু প্রস্তাব আন্তর্জাতিক আইনে সহিংসতা সৃষ্টি করতে পারে।’