মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ-দ.আফ্রিকা ২য় ওয়ানডে

টাইগারদের বোলিং তোপে প্রোটিয়ারা ৯৬/৫ (৩০.৩ ওভারে)

দারুণ বোলিং করা নাসির হোসেন পেয়েছেন তার দ্বিতীয় উইকেট। বিপজ্জনক ফাফ দু প্লেসিকে ফিরিয়ে দিয়েছেন এই অফ স্পিনার।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০.৩ ওভারে ৯৬/৫।

নাসিরের ২টি ছাড়াও মুস্তাফিজ, রুবেল ও মাহমুদুল্লাহ ১টি করে উইকেট নিয়েছেন

নাসির হোসেনের মত বোলিংয়ে এসেই আঘাত হানেন মাহমুদউল্লাহও। এই অফস্পিনার ফিরিয়ে দিয়েছেন ডেভিড মিলারকে।

পঞ্চম ওভারে দলকে ‘ব্রেক থ্রু’ এনে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। তার বলে ঠিক ভাবে খেলতে না পেরে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে সাব্বির রহমানকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান কুইন্টন ডি কক।

ত্রয়োদশ ওভারে রুবেল হোসেনের দুর্দান্ত এক বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান হাশিম আমলা।

১৯তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন নাসির হোসেন। প্রথম বলেই রাইলি রুশোকে বোল্ড করেন এই অফস্পিনার।

২৪তম ওভারে বোলিংয়ে আসেন মাহমুদউল্লাহ। এই অফ স্পিনারের বলে শর্ট মিডউইকেটে মাশরাফি বিন মুর্তজার ক্যাচে পরিণত হন ডেভিড মিলার।

রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাটিং নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা।

বাংলাদেশ দলে একটি পরিবর্তন হয়েছে। লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেনের জায়গায় দলে ফিরেছেন পেসার রুবেল হোসেন। অপরিবর্তিত রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা দল।

এর আগে প্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে ৮ উইকেটে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রোটিয়াদের চেপে ধরার চেষ্টায় টাইগাররা

রুবেল হোসেন প্রথম ওয়ানডেতে সুযোগ পাননি। মনে কষ্ট থেকে থাকবে। আর সেই কষ্টের কিছুটা তিনি দূর করলেন অসাধারণ এক ডেলিভারিতে প্রোটিয়া অধিনায়ক হাশিম আমলাকে (২২) বিদায় করে দিয়ে। পরিস্কার বোল্ড হয়েছেন আমলা। তার অফ স্টাম্প কয়েকটি ডিগবাজি খেয়ে বেশ খানিকটা দুরে গিয়ে পড়েছে। এরপর ১৯তম ওভারে মাশরাফি বল তুলে দিয়েছিলেন তার বাজি নাসির হোসেনের হাতে। আর বল হাতে প্রথম ডেলিভারিতেই রুসোকে তুলে নেন নাসির। ২৪ বলে ৪ রান করে বোল্ড হন রুসো। ৫৯ রানে ৩ উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা।

সেট হয়ে যাওয়া ডু প্লেসিসের সাথে যোগ দিয়েছেন ডেভিড মিলার। চাপে পড়ে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ খবর ২০তম ওভারে ৩ উইকেটে ৬২ রান তাদের।

প্রথম ম্যাচের টসটা জিতেছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। মিরপুরে দ্বিতীয় ওয়ানডের টস জিতেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক হাশিম আমলা। আর টস জিতে ব্যাট করতে নেমেই দ্রুত প্রথম উইকেট হারিয়ে ফেলেছে প্রোটিয়ারা। আঘাতটা হেনেছেন তরুণ মুস্তাফিজুর রহমান। তার বলে ২ রান করে ফিরে গেছেন কুইন্টন ডি কক। ১৬ রানের সময় প্রথম উইকেট হারিয়েছে সফরকারীরা।

মুস্তাফিজপ্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশের যে পারফরম্যান্স ছিল, তাতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশ দলে দুটি পরিবর্তনের কথা ভাবা হচ্ছিল। নবীন লিটন দাস তিন নম্বরে ভালো করছেন না। খুব বেশি সময়ও যে পেয়েছেন তা নয়। তবু দলে যখন এনামুল হক আছেন তখন লিটনের জায়গায় তাকে চেষ্টা করা যেত। প্রথম ওয়ানডেতে জুবায়েরের বোলিং মুগ্ধ করেনি। কিন্তু তার জায়গায় কাউকে নিলে তো বাঁ হাতি স্পিনার আরাফাত সানিকে নিতে হয়। কিন্তু বাংলাদেশ তা করেনি। তারা রুবেল হোসেনকে সুযোগ দিয়েছে। বাংলাদেশ তাই আজ তিন পেসার নিয়ে খেলছে।

টস হারের পর মাঠে টেলিভিশনের কাছে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেছেন, “আমাদের আট ব্যাটসম্যান আছে। যাদের দুজন বল করতে পারে। তাদের (প্রতিপক্ষ) আটকে দিয়ে ভালো ব্যাট করার ইচ্ছেই আমাদের।” প্রথম ম্যাচ জেতা একাদশটাকে অপরিবর্তিত রেখেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তাদের অধিনায়ক হাশিম আমলা বলেছেন, আগের ম্যাচের মতো তারা খেলতে পারলেই তা অনেক ভালো ব্যাপার হয়।

এর আগে, টস হেরে ফিল্ডিংয়ে যায় বাংলাদেশ। প্রথম ওয়ানডেতে টসে জিতেছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে এসে কয়েন নিক্ষেপে জয় হলো সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক হাশিম আমলার। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন প্রোটিয়া অধিনায়ক।

পঞ্চম ওভারের প্রথম বলে মুস্তাফিজ নিজের প্রথম শিকারে পরিণত করেন কুইন্টন ডি কককে (২)।

বাংলাদেশ দলে একটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেনের পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পান রুবেল হোসেন। দক্ষিণ আফ্রিকা দলে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।

প্রসঙ্গত, প্রথম ম্যাচে ৮ উইকেটে হেরে যাওয়ায় ১-০ ব্যবধানে সিরিজে পিছিয়ে বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে ৬টি উইকেট পেয়েছিলেন সফরকারী বোলার রাবাদা। এ ম্যাচে হেরে গেলে টানা তিন সিরিজ পর ওয়ানডে সিরিজ হারবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ একাদশ : মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মাহমুদ উল্লা, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, রুবেল হোসেন ও মুস্তাফিজুর রহমান।

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ : হাশিম আমলা (অধিনায়ক), কুইন্টন ডি কক, ফাফ ডু প্লেসিস, রিলে রুসো, জেপি ডুমিনি, ডেভিড মিলার, ফারহান বেহারাডিয়েন, ক্রিস মরিস, কাইল অ্যাবট, রাবাদা ও ইমরান তাহির।