মেইন ম্যেনু

পড়ে গিয়ে দূর্ঘটনা এড়াতে অবলম্বন করুন ৫টি সাবধানতা

হুড়মুড় করে হাঁটতে গিয়ে কিংবা না দেখে হোচট খেয়ে অনেকেই পড়ে গিয়ে ব্যাথা পান। অনেকেই বেকায়দায় পড়ে গেলে অনেকের হাড়ও ভেঙ্গে যেতে পারে। পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পেলে অনেক সময় স্ট্রোকের ঝুঁকিও থাকে। যে কোনো বয়সেই পড়ে যাওয়াটা বেশ ঝুকিপূর্ন। তাই অসাবধানতাবশত পড়ে যাওয়া এড়াতে প্রয়োজন কিছু সতর্কতার। আসুন জেনে নেয়া যাক পড়ে গিয়ে ব্যাথা পাওয়া এড়ানোর ৫টি সাবধানতা।

প্রতিটা পা সাবধানে ফেলুন

বাসায় কিংবা রাস্তায় অনেক যায়গাতেই উঁচু নিচু যায়গা থাকতে পারে। তাই বাসায় বা রাস্তায় হাঁটার সময় প্রতিটা পা দেখে শুনে সাবধানে ফেলুন। রাস্তায় কোনো ইট কিংবা দড়ি পড়ে থাকলে সেই যায়টা এড়িয়ে যান পরিস্কার সমতল পথ দিয়ে হাটুন। অসতর্ক ভাবে কিংবা অন্যমনষ্ক ভাবে না হেটে পথের দিয়ে তাকিয়ে হাটুন। তাহলে পড়ে যাওয়া এড়ানো সম্ভব অনেকাংশেই।

তার গুছিয়ে রাখুন

ঘরের ভেতর টেলিফোনের তাঁর কিংবা কম্পিউটারের চারে পেঁচিয়ে দূর্ঘটনা ঘটে অহরহ। প্রতিনিয়তই অনেক মানুষ এলো মেলো তারে পেঁচিয়ে পড়িয়ে গিয়ে ব্যাথা পাচ্ছে ও হাড় ভেঙ্গে ফেলছে। তাই ঘরের বিভিন্ন বৈদ্যুতিক জিনিসপত্রের ও টেলিফোনের তার গুলো সুন্দর করে গুছিয়ে রাখুন। ফ্লোরে যেনও ছড়িয়ে ছিটিয়ে তাঁর পড়ে না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। রাস্তা ঘাটেও ফুটপাথের ওপরে তাঁর পড়ে থাকলে সেই স্থান এড়িয়ে চলুন এবং সম্ভব হলে পথের থেকে সরিয়ে দিন যাতে অন্য কেউ দূর্ঘটনা না ঘটায়।

ধীরে হাটুন

ঘরে কিংবা বাইরে সব খানেই ধীরে হাঁটুন। গবেষনায় দেখা গেছে যে যাদের হাঁটার গতি বেশি তাদের দূর্ঘটনাও বেশি ঘটে। তাই পথ চলার সময় দেখে শুনে ধীরে ধীরে হাটুন। খুব বেশি তাড়া থাকলেও তাড়াহুড়া করে হাঁটা উচিত নয়। কারণ সময়ের চাইতে জীবনের দাম অনেক বেশি।

খাঁজ কাঁটা জুতা পরুন

রাস্তায় চলার জন্য কিংবা বাসায় হাঁটার জন্য খাঁজ কাঁটা জুতা বা স্যান্ডেল ব্যবহার করুন। জুতা বা স্যান্ডেলের তলভাগ মসৃণ হলে পিছলে পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ভিজা বা ঢালু জায়গায় এধরণের জুতা-স্যান্ডেল পিছলে গিয়ে দূর্ঘটনা ঘটে। দোকান থেকে জুতা কেনার সময় এর তলভাগ খাঁজ কাঁটা ও অমসৃণ দেখে কিনুন।

আলো

রাতের বেলা ঘরে আলো জ্বেলে রাখুন। ঘুমানোর সময়ও নাইট বাল্ব জ্বালিয়ে রাখুন। কারণ রাতে ঘুম থেকে উঠে পানি খেতে কিংবা বাথরুমে যেতে হলে অন্ধকারে দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। এছাড়াও সাথে সব সময় টর্চ লাইট রাখুন। কারণ হঠাৎ লোড শেডিং হলে কিংবা রাস্তায় আলো না থাকলে অন্ধকার পথ চলতে সমস্যা হয়। টর্চ লাইট থাকলে আলো জ্বেলে দেখে শুনে পথ চলা যায়।