মেইন ম্যেনু

ফাঁসির মঞ্চ প্রস্তুত, কারা কর্তৃপক্ষের জরুরি বৈঠক

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি রায় কার্যকরের প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য জরুরি বৈঠক করেছে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারা কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ফাঁসির রায় কার্যকরের প্রস্তুতি নিয়ে বৈঠকে বসেন কারা কর্মকর্তারা। বৈঠকে ছিলেন অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শক কর্নেল মো. ইকবাল, কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবির, জেলার নেসার আলমসহ বেশ কয়েকজন কারা কর্মকর্তা। এর আগে কারাগারের ভেতরে বিভিন্ন বিভাগ ঘুরে দেখেন তারা।

এদিকে ফাঁসির মঞ্চ প্রস্তুত করে রেখেছে কারা কর্তৃপক্ষ। এছাড়া নিজামীর ফাঁসিকে কেন্দ্র করে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ ও র‌্যাব। কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে র‌্যাবের টহলও বাড়ানো হয়েছে।

কারা সূত্র জানিয়েছে, আজ মঙ্গলবার যেকোনো সময় ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষে ম্যাজিস্ট্রেটরা কারাগারে এসে নিজামীর কাছে জানতে চাইবেন, তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইবেন কি-না। প্রাণভিক্ষা না চাইলে বা চাওয়ার পর আবেদন নাকচ হলে শুরু হবে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের চূড়ান্ত প্রক্রিয়া।

সূত্রমতে, সোমবার রাতে নিজামীকে মৃত্যুপরোয়ানা পড়ে শোনোনোর পরই এই বৈঠক হচ্ছে।এর আগে সন্ধ্যা সাতটার পর রিভিউ আবেদন খারিজের রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি কারাগারে পৌঁছায়। এর পরই মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানি বাহিনীর সহযোগী কিলিং স্কোয়াড আলবদর বাহিনীর এই নেতাকে ফাঁসিতে ঝোলানোর চূড়ান্ত প্রস্তুতি শুরু হয়। রাতেই কারাগারের কনডেম সেলে থাকা নিজামীকে রায়টি পড়ে শোনানো ছাড়াও তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।

এছাড়া ফাঁসির মঞ্চ প্রস্তুত করে রেখেছে কারা কর্তৃপক্ষ। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার ও গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারের দশ জল্লাদের একটি টিমও তৈরি করা হয়েছে, যাদের মধ্যে চূড়ান্তভাবে মনোনীতরা নিজামীর ফাঁসি কার্যকরে অংশ নেবেন।