মেইন ম্যেনু

ফিনল্যান্ডে ২৩ ঘণ্টা রোজা

রমজানের সাধারণ নিয়ম হচ্ছে ভোররাতে সেহরি খাওয়া এবং মাগরিবের সময় ইফতারি করা। মাঝখানে সারাদিন কোনো ধরনের খাদ্য কিংবা পানীয় চলবে না। কিন্তু যেসব দেশে কখনোই সূর্য ডুবে না বা মাত্র দু এক ঘণ্টার জন্য সূর্য অস্ত যায় সেসব দেশের মুসলমানরা তাহলে কীভাবে রোজা রাখবেন?

সুমেরু বলয়ে থাকা দেশগুলোতে রোজা রাখা আসলেই বেশ কষ্টকর। কেননা সেখানে এমন কিছু দেশ আছে যেখানে সূর্য অস্ত যায় না। যেমন লেপল্যান্ড, ফিনল্যান্ড ও সুইডেন। ফিনল্যান্ডের কথাই ধরুন, সেখানে মাত্র ৫৫ মিনিটের জন্য সূর্য অস্ত যায়। তারপরও সেসব দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা নিয়মিত রোজা পালন করছেন। এ নিয়ে স্থানীয় এক সংবাদ মাধ্যমের কাছে নিজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন মোহাম্মদ নামের এক বাংলাদেশি যুবক। সেখানে তিনি বলেছেন,‘আমরা বেলা ১টা ৩৫ মিনিটে সেহরি খাই। ইফতার করি সন্ধ্যা ১২টা ৪৮ মিনিটে।’ অর্থাৎ আমাদের মোট ২৩ ঘণ্টা ৫ মিনিট রোজা থাকতে হয়। কিন্তু বাংলাদেশে থাকা আমরা আত্মীয় ও বন্ধুরা এ কথা বিশ্বাসই করতে চায় না যে, আমরা ২০ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে রোজা রাখি। যখন তারা শোনে আমাদের দীর্ঘ ২৩ বা সাড়ে ২২ ঘণ্টা ধরে রোজা রাখতে হয় তখন তারা অবাক হয়ে যায়। তারা তখন জানতে চায়, এত দীর্ঘ সময় আমরা কীভাবে না খেয়ে থাকি। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে আমরা অত লম্বা সময় ধরে রোজা রাখতে পারি।’

ফিনল্যান্ডের আশপাশের দেশগুলোর অবস্থাও কম বেশি একই রকম। যেমন লাপল্যান্ডের মুসলিমরা মধ্যপ্রাচ্য বা আশপাশের মুসলিম দেশগুলোর সময় অনুসারে রোজা রেখে থাকেন। আসলে কতটা সময় ধরে রোজা রাখা হচ্ছে সেটি কোনো বিষয় নয়। আসল প্রশ্ন হচ্ছে, আপনার ঈমানের জোর কতটা মজবুত? ঈমানের জোরেই ফিনল্যান্ডের মত দেশগুলোর মুসলিমরা দীর্ঘ ২৩ ঘণ্টা ধরে রোজা রাখছেন।

সূত্র: দ্যা ইন্ডিপেন্ডেন্ট