মেইন ম্যেনু

ফুটপাতেও কিরনমালা!

মৌলভীবাজারে ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠেছে কেনাকাটা। অভিজাত মার্কেট থেকে শুরু করে ফুটপাত -সবখানেই কেনাকাটার ধুম পড়েছে। শহরের বাণিজ্যিক কেন্দ্র এম সাইফুর রহমান রোডের মার্কেট গুলোতে ভিড়ের মধ্যে ক্রেতারা কেনাকাটা করছেন।

এখানে মানুষের সমাগম সবচেয়ে বেশি। মৌলভীবাজার শহরের অভিজাত মার্কেটগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- এমবি ক্লোথ স্টোর, বিলাশ ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, সুমাইয়া বুটিক ফ্যাশন, আলমদিনা ক্লোথ স্টোর ও জেদ্দা ক্লোথ স্টোর। এসব দোকান ছাড়াও বিভিন্ন শপিং সেন্টারে ক্রেতারা কেনাকাটার জন্য ভিড় করছেন। নামি-দামি দোকানের পাশাপাশি ফুটপাতের দোকানে হরেক রকম কাপড় সাজিয়ে বসেছেন হকাররা আর তাতে স্থান করে নিয়েছে কিরনমালা। নিম্ন আয়ের মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন ফুটপাতের এসব দোকানে।

এ বারের ঈদবাজারে মেয়েদের কিরণমালা, ফ্লোর টার্চ, শাড়ি, থ্রি-পিছ, সেলোয়ার কামিজ, ফতুয়া, স্কার্ট, ছেলেদের মোদি পাঞ্জাবি, লং ও শর্ট পাঞ্জাবি, ফতুয়া, শার্ট, জিন্স ও টি-শার্ট, বাচ্চাদের নানা রঙ ও ডিজাইনের পোশাকের সমাহার ঘটেছে। ঈদকে সামনে রেখে কাপড়ের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। দাম বৃদ্ধির পরিমাণ অন্যান্য বারের থেকে অনেক বেশি বলে অভিযোগ ক্রেতাদের।

ঈদ মার্কেট করতে আসা কুলসুমা আক্তার, হুমায়রা জান্নাত, মোস্তাকিম আহমদ, সজিবুর রহমান দুর্জয় জানান, ঈদের আগে পোশাকের দাম স্বাভাবিক থাকলেও ঈদের সময় ব্যবসায়ীরা দাম বাড়িয়ে দেন। ফলে ক্রেতাদের বাধ্য হয়ে কয়েকগুণ বেশি দামে পোশাক কিনতে হয়।

এমবি ক্লোথ স্টোরে ঈদের কেনাকাটা করতে আসা কলেজ ছাত্রী ফাতেহা আক্তার ও ইমা আক্তার জানান, রোজার শেষ দিকে মার্কেটগুলোতে ভিড় থাকে। শেষ সময়ে কাপড়ের দোকানগুলোতে পছন্দের কাপড় হয়ত নাও থাকতে পারে। তাই আগেভাগেই এসেছি পোশাক কিনতে।