মেইন ম্যেনু

ফুটপাত থেকে সিনেমায় নায়ক যারা…

বাবা কিংবা মায়ের সিঁড়ি বেয়ে বলিউডে অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী ঠাঁই করে নিয়েছেন। কিন্তু এর মধ্যে স্ট্রাগল করে উঠে আসাদের তালিকাও নেহাত কম নয়। তবে শাহরুখ খান, কিংবা রজনীকান্তের মতো কয়েকজনকে বাদ দিলে বাকি অভিনেতাদের অতীত নিয়ে আমরা ক’জনই বা জানি?

অক্ষয় কুমার

বলিউডের সফল অভিনেতা অক্ষয় কুমারের আসল নাম রাজিব হরি ওম ভাটিয়া। যিনি অভিনয়ে আসার আগে ব্যাংককে কুক ছিলেন। এমনকি তিনি ঢাকার শেরাটন হোটেলেও কুক হিসেবে কাজ করে গেছেন। অবশ্য এ কথা সবাই জানে। কিন্তু জানেন, তারও আগে কী ছিলেন অক্ষয় কুমার?

নিজে চলার জন্য কলকাতায় অ্যাকসেসরিজ বিক্রি করতেন তিনি। কম দামে সেসব জিনিস কিনে কলকাতার ফুটপাতে ফুটপাতে হকারি করে বিক্রি করতেন। একবার তো চম্বলে ডাকাতের খপ্পরেও পড়েছিলেন অক্ষয় কুমার।

আরশাদ ওয়ার্সি

ভারতের বোরিভেলি থেকে বান্দ্রা পর্যন্ত লিপস্টিক ও নেলপলিশ বিক্রি করতেন আরশাদ ওয়ার্সি। ওটাই ছিল তার নিত্যদিনের কাজ। যখন তিনি আকবর সামির ট্রুপে হাজার টাকার বিনিময়ে নাচের সুযোগ পান। তা ছিল তাঁর কাছে স্বপ্নাতীত। তারপর তিনি একটি ডান্স স্টুডিও খোলেন। চলচ্চিত্রে কাজ করার পাশাপাশি কিছু শোয়েও কোরিওগ্রাফ করেছিলেন তিনি। তার অ্যাসিস্টেন ছিলেন মহেশ ভাট।

আরশাদ ওয়ার্সি

সঞ্জয় মিশ্র
সেরা অভিনেতা হিসেবে একাধিক পুরস্কার পেয়েছেন সঞ্জয় মিশ্র। সমালোচকদের প্রশংসা জুটেছে তার ভাগ্যে। ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামায় ইরফান খান ও তিগমাংশু ধুলিয়ার সিনিয়র ছিলেন তিনি। জানা যায়, বাবা মারা যাওয়ার পর তিনি চাকরির সন্ধান করছিলেন। অভিনেতা হওয়ার আগে মহাসড়কের পাশের রেস্টুরেন্ট অর্থাৎ ধাবায় অমলেট বানাতেন।

মনোজ বায়পেয়ি
ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামার ছাত্র ছিলেন মনোজ বাজপেয়ি। একসময় নিজের উপর ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন।