মেইন ম্যেনু

ফুটবল বাঁচানোর দায়িত্ব পাপনের কাঁধে!

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিবি) বেশ ভালোভাবেই নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন নাজমুল হাসান পাপন। দক্ষ সংগঠকের পরিচয় দেওয়ায় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি এরই মধ্যে সুনাম কুড়িয়েছেন। নতুন করে নাজমুল হাসানকে ফুটবল বাঁচানোর আন্দোলনে যোগ করা হয়েছে!

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির বিরোধী জোট ‘বাঁচাও ফুটবল’-এর সদস্যরা বুধবার নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে দেখা করেছেন। ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতির বাসভবনে প্রায় ঘন্টখানেক অবস্থান করেন বাফুফের সদস্যরা। বাফুফের সদস্যরা নাজমুল হাসান পাপণের কাঁধে নতুন দায়িত্ব দিয়ে তাদের বক্তব্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপনের আবেদন জানিয়েছেন।

ক্রিকেট বোর্ড সভাপতির গুলশানের বাসায় বুধবার উপস্থিত ছিলেন জাতীয় দলের প্রাক্তন ফুটবলার শামসুল আলম মঞ্জু, আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নু, আবদুল গাফফার, কায়সার হামিদ, জাকারিয়া পিন্টু, কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ডিরেক্টর ইন চার্জ লোকমান হেসেন ভূঁইয়া, আবু হাসান চৌধুরী প্রিন্সসহ অন্যান্য ফুটবল সংগঠক ও খেলোয়াড়রা।

প্রাক্তন ফুটবলার আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নু নাজমুল হাসানের বাসা থেকে বের হয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা বিসিবি সভাপতির কাছে বাফুফের চলমান অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা, নানা দুর্নীতি সম্পর্কে একটি চিত্র উপস্থাপন করেছি। আমরা মনে করেছি বিসিবি সভাপতি বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনের একজন অভিভাবক, সেই অভিভাবকের মাধ্যমে দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের বার্তা ও বক্তব্য তুলে ধরার আবেদন করেছি।’

‘ফুটবল বাঁচাও’ কমিটির দাবি, বাফুফেতে একটি স্বচ্ছ ও দেশের ফুটবলকে সঠিকভাবে পরিচালনা করার একটি যোগ্য কমিটি। বর্তমান কমিটির মেয়াদ প্রায় শেষ পর্যায়ে। আগামী মে মাসে বাফুফের নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বুধবারের আলোচনা নিয়ে বলেন, ‘আমি খেলোয়াড় ও সংগঠকদের কথা শুনেছি। তারা ফুটবলের ভালো চাচ্ছেন বলে আমার কাছে এসেছেন। আমাকে তাদের একটি দায়িত্ব দিয়েছেন। আমি কথা দিয়েছি যতটুকু সম্ভব আমি তাদের সাহায্য করব।’

পাপন জানান, আগামী কিছুদিনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফুটবল বাঁচানোর আন্দোলনের বিষয়ে কথা বলবেন তিনি।



« (পূর্বের সংবাদ)