মেইন ম্যেনু

ফের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার

উত্তর কোরিয়া আবারও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। তবে প্রথমবারের মতো ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপানের জলসীমায় গিয়ে পড়েছে। বুধবার এ পরীক্ষা চালানো হয় বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাপ্রধানের কার্যালয়।

এতে বলা হয়, সিউলের স্থানীয় সময় বুধবার সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের দক্ষিণ-পশ্চিমের প্রদেশ দক্ষিণ হোয়াংহাইয়ি থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি ছোড়া হয়। পরে এটি জাপান সাগরে গিয়ে পতিত হয়। ধারণা করা হচ্ছে, রোডোং ক্ষেপণাস্ত্রের মতো এটি মধ্যমপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র, যা প্রায় ৬২০ মাইল দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, এ পরীক্ষার মাধ্যমে বোঝা যাচ্ছে, উত্তর কোরিয়া তার প্রতিবেশী দেশ ও দক্ষিণ কোরিয়ার বন্দর ও বিমানঘাঁটিসহ বেশ কয়েকটি স্থানকে হামলার লক্ষ্যবস্তু বানাতে চায়।

এদিকে উত্তর কোরিয়ার এ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে জাপান। দেশটির প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় একে জাপানের প্রতি ‘ভয়াবহ হুমকি’ বলে মন্তব্য করেছেন।

আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও চলতি বছরের প্রথম থেকে এ পর্যন্ত বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। গত মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র থাড ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েনের ঘোষণা দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে পিয়ংইয়ং জানায়, এটি মোতায়েন করা হলে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার ওপর সরাসরি আঘাত হানা হবে।