মেইন ম্যেনু

ফের পেছালো খালেদার বিরুদ্ধে চার্জশিটের শুনানি

রাজধানীর দারুস সালাম থানায় নাশকতার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ২১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণের শুনানি আবারো পিছিয়ে দিয়েছে আদালত। পরিবর্তিত তারিখ অনুযায়ী আগামী ১০ আগস্ট এ শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক রুহুল আমিন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর পক্ষের সময় আবেদন মঞ্জুর করে নতুন এই তারিখ ধার্য করেন।

এর আগে গত ৬ জুন রাজধানীর দারুস সালাম ২৯(২)১৫ নম্বরের ওই মামলাসহ ৪টি মামলায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। চার্জশিটে খালেদা জিয়াকে পলাতক দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়।

২০১৫ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে দারুস সালাম থানাধীন দিয়াবাড়ী সংলগ্ন নতুন রাস্তার উপর ঢাকা মেট্রো-ব-১১-২৭০৭ নম্বর মিনিবাসে আগুন দেয়ার ঘটনায় মামলাটি দায়ের করেন ওই থানার এসআই কামরুল হাসান।

মামলার এজাহারে ১৬ জনকে আসামি করা হয়। যেখানে খালেদা জিয়ার নাম আসামিদের তালিকায় ছিল না। তবে এজাহারের বক্তব্যে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর নাম ছিল।

১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫(৩) এবং ২৫-ঘ ধারায় নাশকতা চালিয়ে রাষ্ট্রের ক্ষতি সাধণের অভিযোগে এ চার্জশিট দাখিল করা হয়। মামলায় খালেদা জিয়াকে পলাতক দেখানো হয়েছে।

খালেদা জিয়া ছাড়া চার্জশিটের উল্লেখযোগ্য আসাসিরা হলেন, বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমান, শরাফাত আলী সফু, হাবিবুন নাবী খান সোহেল, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মারুফ কামাল খান, সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়া ও মামুন হাসান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সর্বমোট নাশকতার ১২টি মামলায় চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। এর মধ্যে গত ২ মাসে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নাশকতার ৯টি মামলায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ।