মেইন ম্যেনু

ফেলে দেয়া আইসক্রিমের কাপ দিয়ে তৈরি হলো লাইব্রেরি!

নোটপ্যাড, স্মার্টফোনের যুগেও কিছু বইপ্রেমী এখনো বই পড়তে যান লাইব্রেরি বা গ্রন্থাগারে। আসলে নতুন ও পুরনো বইয়ের বিশেষ গন্ধ পাওয়া যায় না প্রযুক্তির মোড়কে। সেই অনুভূতি একমাত্র দিতে পারে হাতে একটি বই। বর্তমান গ্যাজেট সর্বস্ব বিশ্বে শিশুরা আসক্তি হারাচ্ছে বইয়ে। লাইব্রেরিতে ভিড় জমায় না কচিকাঁচারা। তবে ইন্দোনেশিয়ার বান্ডুং লাইব্রেরির ক্ষেত্রে ধারণাটি একেবারেই ভুল। কারণ, বান্ডুং লাইব্রেরি পুরোটাই তৈরি ফেলে দেয়া আইসক্রিম কাপ দিয়ে।

শিশুদের গ্রন্থাগার-মুখো করতেই এই অভিনব লাইব্রেরিটি তৈরির সিদ্ধান্ত নেয় স্থানীয় প্রশাসন। ইন্দোনেশিয়ার ছোট্ট গ্রাম বান্ডুং-এ গড়ে তোলা হয়েছে লাইব্রেরিটি। লাইব্রেরিটি যাবতীয় ডিজাইনের ভার ছিল ফ্লোরিয়ান হেঞ্জেলম্যান ও নেদারল্যান্ডের ডিজাইন ফার্ন শাউ-এর উপর। মোট ২ হাজারটি ফেলে দেয়া আইসক্রিম বাকেট দিয়ে সম্পূর্ণ লাইব্রেরিটি তৈরি করা হয়েছে।

আইসক্রিম কাপগুলি এমন ভাবে সাজানো, বাইরে থেকে দেখলে মনে হয় লেখা রয়েছে, ‘Books are the windows to the world’, অর্থাত্‍‌, বই-ই বিশ্বের জানলা। প্রস্তুতকারী সংস্থা জানাচ্ছে, ইন্দোনেশিয়ায় প্লাস্টিক বর্জ্য ক্রমেই বেড়ে চলেছে। তাই ওই বর্জ্যগুলিকে শৈল্পিক ভাবনায় পূর্ণব্যবহারের উদ্দেশ্যেই এই লাইব্রেরিটি।

আইসক্রিম বাকেটগুলি আধা-স্বচ্ছ। তাই লাইব্রেরির ভিতর অসাধারণ আলোর খেলা বই পড়ার পরিবেশকে এক অন্য দুনিয়ায় নিয়ে যায়।-টাইমস অফ ইন্ডিয়া