মেইন ম্যেনু

ফেসটাইমে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন এরদোগান

তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থানের পর প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোগান ‘ফেসটাইম’ নামক একটি মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন।

শুক্রবার রাতে তুরস্কে সেনাবাহিনীর একাংশ অভ্যুত্থানের পর রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনসহ অন্যান্য টিভি চ্যানেলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। অভ্যুত্থানের সময় প্রেসিডেন্ট এরদোগান দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি পর্যটন এলাকায় ছুটি কাটাচ্ছিলেন। অভ্যুত্থানের খবর পাওয়া মাত্র তিনি ছুটি বাতিল করে ইস্তাম্বুল চলে আসেন।

ইস্তাম্বুলে ফেরত আসার পর জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার জন্য এরদোগানের সামনে কোনো টেলিভিশন চ্যানেল ছিল না। কারণ, সব টেলিভিশন ছিল সেনাবাহিনীর দখলে। উপায় না দেখে এরদোগান মোবাইল অ্যাপ ‘ফেসটাইম’ ব্যবহার করে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন।

ভাষণে এরদোগান বলেন, ‘আমাদের সেনাবাহিনীর একটি ক্ষুদ্র অংশ অভ্যুত্থানের চেষ্টা চালিয়েছে। যারা জাতীয় সম্পত্তি ট্যাংক, প্লেন ও হেলিকপ্টার নিয়ে হামলা চালিয়েছে, তাদেরকে সর্বোচ্চ মূল্য দিতে হবে।’

এরদোগান ফেসটাইমে ভাষণে জনগণকে রাস্তায় নেমে আসার আহ্বান জানান। তার আহ্বানে হাজার হাজার মানুষ অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে আসে।

ফেসটাইম হলো টেকজায়ান্ট অ্যাপলের একটি ভিডিওটেলিফোনি অ্যাপ, যার মাধ্যমে ভিডিওবার্তা পাঠানো যায় এবং ভিডিও ফোনালাপ করা যায়।

তুরস্কের সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এরদোগান একটি নিরাপদ জায়গায় অবস্থান করছেন। তবে নিরাপদ জায়গাটি কোথায়, তা স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি।

তথ্যসূত্র : এনডিটিভি