মেইন ম্যেনু

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়াকে কেন্দ্র করে জবি শিক্ষার্থীকে মারধর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়াকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে এ বিশ্ববিদ্যালয়েরই শিক্ষার্থীরা। রোববার দুপুর ১টার দিকে রসায়ন বিভাগের নিচে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্রাইম রিভিল্ড’ নামে একটি ফেসবুক পেজ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ১৬ জন শিক্ষার্থীর নামে মানহানিকর স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে চারজন ছাত্রীর নাম রয়েছে। এতে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ওই পেজের এডমিন সন্দেহে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের নবম ব্যাচের শিক্ষার্থী রাজনকে মারধর করে। এতে রাজনের ঠোট কেটে যায় এবং নাকে আঘাত লাগে। পরে তাকে সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা দিয়ে বাসায় পাঠানো হয়। তার ঠোটে তিনটি সিলাই দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। আহত রাজন জানান, তিনি ওই পেজের এডমিন নন। বিনা কারণে তাকে মারধর করা হয়েছে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করবেন। ফেসবুক স্ট্যাটাসে যাদের নাম দেয়া হয়েছে তাদের একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের সাথে জড়িয়ে একটি ফেসবুক পেজে তাদের নামে কটু কথা বলা হয়েছে। যা তাদেরকে সামাজিক ভাবে হেয় করেছে।

এ বিষয়ে জবির ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মদ বলেন, মারামারির সময় মেহেদী হাসান নামে এক শিক্ষার্থীকে সনাক্ত করা হয়েছে। আহত শিক্ষার্থী লিখিত অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ফেসবুক পেজ সম্পর্কে তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরনের কাজ করা এক ধরনের সাইবার ক্রাইম। যাদের নামে কটু কথা লেখা হয়েছে তারা অভিযোগ দিলে তদন্ত কমিটি গঠন করে উভয় ঘটনায় ব্যবস্থা নেয়া হবে।