মেইন ম্যেনু

ফেসবুক প্রতারকের ১ বছর জেল

রাজধানীর উত্তরা থেকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল শাহ আবিদ হোসেন নামে একজন ডিজিটাল প্রতারককে গ্রেফতার করেছে। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ল্যাপটপ এবং একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উত্তরা পার্ক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার বাদির অভিযোগের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

যোগাযোগ করা হলে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সাইবার ক্রাইম শাখার প্রধান সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার নাজমুল ইসলাম জানান, আবিদের নামে প্রতারণা ছাড়াও প্রাক্তন প্রেমিকাদের আপত্তিকর ছবি অনলাইনে পোস্ট করার হুমকি দিয়ে তাদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতারক হিসেবে অনেকের কাছেই চিহ্নিত। বিভিন্ন সময়ে নিজের নানা অসুবিধার কথা বলে তিনি সরলপ্রাণ মানুষদের কাছ থেকে অর্থ আত্মসাৎ করেন।

অনুসন্ধানে জানা যায়, সবশেষ DESPERATEY SEEKING EXPLICIT নামে ফেসবুক গ্রুপে নতুন করে নিজের প্রতারণার ফাঁদ পাততে গিয়ে তিনি ব্যর্থ হন। গ্রুপ মেম্বারদের অভিযোগের ভিত্তিতে ‘জাস্টিস ফর ওম্যান, বাংলাদেশ’ নামে একটি মানবাধিকার সংস্থা তার প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীদের সাহায্যে এগিয়ে আসে এবং তাদের পরিকল্পনা মোতাবেকই আবিদকে গ্রেফতার করা হয়।

আবিদের সাজা পাওয়ার সংবাদে ভার্চুয়াল জগতে তার দ্বারা প্রতারিতদের মধ্যে স্বস্তির নিঃশ্বাস নেমে আসে। সেই সঙ্গে আরো অনেক ভিকটিম আবিদের প্রতারণার চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করতে থাকেন।