মেইন ম্যেনু

ফ্রান্সে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ

নতুন শ্রম আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের সময় ফ্রান্সে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাজধানী প্যারিসে সংঘর্ষে আহত হয়েছে কমপক্ষে ১২ জন।

নতুন শ্রম আইনের প্রতিবাদে গত ছয় মাস ধরেই ফ্রান্সে শ্রমিকরা বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করে আসছে। সমালোচকদের দাবি নতুন আইনে প্রতিষ্ঠানগুলোকে কর্মঘন্টা বাড়ানোর সুযোগ সহজ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শ্রমিক ইউনিয়নের ক্ষমতাও হ্রাস করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার দেশজুড়ে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে ৭৮ হাজার শ্রমিক। এদের মধ্যে রাজধানী প্যারিসেই অংশ নিয়েছে ১৩ হাজার বিক্ষোভকারী। এয়ার ট্রাফিক শ্রমিকরা কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ায় অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক অসংখ্য ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করতে হয়েছে কর্তৃপক্ষকে। প্যারিসে বিক্ষোভকারীরা পুলিশের দিকে ককটেল ছুঁড়লে পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে টিয়ার গ্যাস ও স্টান গ্রেনেড ছোড়ে। এসময় চার বিক্ষোভকারী ও আট পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। পুলিশ এখান থেকে ১৫ বিক্ষোভকারীকে আটক করেছে। পশ্চিমের শহর নানতেসেও প্রতিবাদ কর্মসূচি সহিংসতায় রুপ নেয়। এ সময় পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে টিয়ার গ্যাস ও জলকামান ব্যবহার করে।

লেবার ট্রেড ইউনিয়ন নেতা ফ্রাঙ্কোয়েস রোচি বলেন, ‘আমরা তাদের দেখিয়ে দেব আইন অথবা আইন ছাড়াই তাদের বিরুদ্ধে আমরা দাঁড়াতে পারি।’

প্রসঙ্গত, গত জুনেও শ্রমিকরা ফ্রান্সজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ করেছিল। ওই সময় কয়েক লাখ শ্রমিক ওই কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিল।