মেইন ম্যেনু

বই পড়ুয়া প্রেমিকের ১০টি গুন

হেড লাইন দেখে অবাক হচ্ছেন ? ভাবছেন এটা আবার কি ? কিন্তু বিষয়টা আসলেই সত্যি । আজকাল এমন মানুষের সংখ্যা নেহাত কম যারা কিনা বইয়ের সাথেই থাকতে ভালোবাসেন।তবে জানেন কি প্রেমিক হিসাবে বই পড়ুয়া ছেলেরা চমৎকার হয়ে থাকেন অন্য যে কোন ছেলের চাইতে । আসুন জেনে নেই এই বই পড়ুয়া প্রেমিকের ১0টি গুন –

১) তিনি জানেন, তাঁর অভিজ্ঞতা অনেক বেশী

একজন পাঠকের অভিজ্ঞতা অন্য যে কারো চাইতে অনেক বেশী। বইয়ের জগতের মাধ্যমে তিনি রাজপুত্রের জীবন যাপন করেছেন, করেছেন ফকিরের জীবনও যাপন। তিনি জানেন অনেক বেশী, তাঁর জ্ঞান ও অভিজ্ঞতাও বেশী। ফলে তিনি শান্ত ও স্থির। হ্যাঁ, সম্পর্কের ক্ষেত্রেও।

২) মাঝপথে পালিয়ে যাবার প্রবণতা তাঁর নেই

একজন পাঠক কখনো বই শেষ না করে ছাড়েন না। আর সেই অভ্যাসটা দেখা যায় তাঁদের জীবনের ক্ষেত্রেও। কাজ হোক বা সম্পর্ক, কোনটাই তাঁরা মাঝপথে ফেলে রেখে পালিয়ে যান না।

৩) তিনি জানেন সমঝোতা করতে

বইয়ের জগতে বসবাস করতে করতে মানুষের জীবনের নানান পরিস্থিতির সাথে তাঁর পরিচয় হয়। তিনি শিখে ফেলেন জীবনে সমঝোতার গুরুত্ব ও উপায়।

৪) তিনি মেয়েদের সম্পর্কে জানেন ও বোঝেন

পড়ুয়া পুরুষেরা সেই সব ছেলেদের তালিকায় পড়েন না, যারা কিনা শুধু মেয়েদের নিয়ে অলীক কল্পনা করে কাটায়। বরং একজন বই পড়ুয়া পুরুষ মেয়েদেরকে জানেন, বোঝেন, তাঁদের সম্পর্কে ভাবেন এবং তাঁদেরকে দেখেন একদম ভিন্ন চোখে।

৫) তিনি কৌতূহলী

নিঃসন্দেহে পড়ুয়া মানুষেরা কৌতূহলী, আর সে কারণেই তিনি পড়েন। এমন মানুষের সাথে জীবন কখনো একঘেয়ে হয়ে যাবে না, সম্পর্কও না।

৬) প্রথম দর্শনেই তিনি পাগল হন না

একজন ভালো পাঠক জানেন যে প্রথম দর্শনে কোন কিছুকে ভালবাসলে পরে পস্তাতে হয়। জেনে,বুঝে,পড়ে তবেই ভালবাসতে অভ্যস্ত তিনি। আর তাই তিনি যখন আপনাকে ভালবাসবেন, জেনে নেবেন যে কাজটা তিনি জেনে-বুঝেই করছেন।

৭) তাঁর আদর্শ অন্যদের চাইতে উন্নত

একজন বই পড়ুয়া মানুষের অভিজ্ঞতা ও জ্ঞানের মানুষ তাঁকে অন্যদের চাইতে উন্নত মানুষ হতে সহায়তা করে। স্বভাবতই মানুষ হিসাবে তিনি আদর্শগত দিক থেকে অনেকটাই উন্নত হয়ে ওঠেন। এমন একজন রুচিশীল মানুষের সাথে জীবনটা হয়ে উঠবে সুন্দর।

৮) তিনি চাকচিক্যে ভোলেন না

একজন ভালো পাঠক কেবল বইয়ের মলাট দেখেই ভালোমন্দ বিচার করেন না। আর এই অভ্যাস তাঁর বাস্তব জীবনেও রয়ে যায়। কেবল বাহ্যিক সৌন্দর্য দেখে তিনি ভোলেন না, তিনি জানেন সনাতনের গুরুত্ব। সব নতুনই যে ভালো নয়, চকচক করলেই যে সোনা হয় না ইত্যাদি তিনি ভালোই বোঝেন।

৯) তিনি পুরনোকে ভয় পান না, ভালোবাসেন

সম্পর্ক পুরনো হয়ে যাওয়া যে কোন মানুষের বড় ভয়। কিন্তু পড়ুয়া পুরুষদের এটা নেই। পুরনো বইয়ের মতই তাঁরা পুরনো প্রেমিকা ও পুরনো সম্পর্কের কদর করেন।

১০) তিনি জানেন কীভাবে বুঝে নিতে হয়

মনে কথা বুঝতে পারার গুণটি ভালো পাঠক মাত্রই আছে। আর এই গুণ যখন প্রেমিকের মাঝে থাকবে, ভাবুন তো জীবনটা কত সহজ হবে।