মেইন ম্যেনু

বউ পেটাবেন কী ভাবে? এ নিয়ে টিভিতে অনুষ্ঠান!

কী কী কারণে এবং কী ভাবে বউ পেটানো উচিত, তা নিয়ে অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হল সৌদি আরবের সরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে। বিষয়টি জানাজানি হতেই বিতর্কের ঝড় উঠে গিয়েছে গোটা বিশ্বে। কোনও দেশের সরকারি টেলিভিশন স্ত্রীয়ের উপর নির্যাতন চালানোর পক্ষে এমন প্রচার কী ভাবে চালালো, তা নিয়েই প্রশ্ন তুলছে বিভিন্ন মহল।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, এক ফ্যামিলি থেরাপিস্ট বক্তব্য রাখছেন। তাঁর নাম খালেদ আল-সাকাবি। তিনি ভিডিওতে ব্যাখ্যা করছেন, এক জন পুরুষ কোন কোন কারণে তাঁর স্ত্রীকে মারবেন। স্ত্রীকে মারধর করা এবং শাসন করা যে স্বামীর অধিকার, তাও জোর গলায় দাবি করেছেন সাকাবি।

ভিডিওতে সাকাবি বলেছেন, স্ত্রীকে মারা যেতেই পারে। তবে যে সব কারণে ইসলাম স্ত্রীকে মারার অনুমতি দেয়, শুধুমাত্র সেই সব কারণেই মারতে হবে। সাকাবির কথায়, শৃ‌ঙ্খলার জন্য স্ত্রীকে মারা যেতে পারে, নিজের রাগ প্রকাশ করার জন্য নয়। সাকাবির যুক্তি, স্বামী যখন স্ত্রীকে মারবেন, তখন এটা বোঝানোর জন্যই মারবেন যে স্বামীর সঙ্গে তিনি যে ব্যবহার করেছেন, তা ঠিক হয়নি। অনুচিত ব্যবহারের জন্যই মার খেতে হচ্ছে। পুরুষদের প্রতি সাকাবির পরামর্শ, স্ত্রীকে মারধর শুরু করার আগে তাঁকে মনে করিয়ে দিতে হবে, আল্লাহ্‌র নির্দেশ অনুযায়ী স্বামীর অধিকার এবং স্ত্রীয়ের কর্তব্য কী কী।

খালেদ আল-সাকাবির এই বক্তব্য সৌদি আরবের সরকারি টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয়েছে ফেব্রুয়ারি মাসে। সরকারের অনুমোদন নিয়েই ওই অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হয়েছিল। বিষয়টি সম্প্রতি আমেরিকার মিডল-ইস্ট মিডিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট সামনে এনেছে। সৌদি ফ্যামিলি থেরাপিস্টের দেওয়া নিদানের তীব্র নিন্দা তো শুরু হয়েইছে। সমালোচনার ঝড় উঠেছে সৌদি সরকারের বিরুদ্ধেও।






মন্তব্য চালু নেই