মেইন ম্যেনু

বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণ : তদন্ত শেষ হচ্ছে দ্রুতই

রাজধানীর বনানীতে দুই তরুণী ধর্ষণের ঘটনার তদন্ত কার্যক্রম দ্রুতই শেষ হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির গোয়েন্দা ও অপরাধ তথ্য (ডিবি) বিভাগের যুগ্ম কমিশনার মো. আব্দুল বাতেন। বুধবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ধর্ষণ মামলা দায়ের করার পর প্রথমে তদন্ত করে বনানী থানা পুলিশ। পরে ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশে মামলার তদন্তভার পুলিশের উইমেন সার্পোট সেন্টারের অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন বিভাগকে দেয়া হয়। এ ছাড়া আলোচিত এ ধর্ষণ মামলার ঘটনার তদন্ত কার্যক্রমে সহায়তার জন্য ডিএমপি কমিশনার উচ্চ পার্যায়ের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ওই কমিটির সদস্য গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যুগ্ম কমিশনার মো. আব্দুল বাতেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, দুই তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত চার আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আসামিদের কাছ থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছি। সেগুলো যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে। এখনও এক আসামি পলাতক রয়েছেন, তাকে গ্রেফতারে চেষ্টা করছি।

আসামিরা আদালতে ঘটনার বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত ২৮ মার্চ বন্ধুর সঙ্গে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে গিয়ে বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে ধর্ষণের শিকার হন দুই বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তরুণী। ওই ঘটনায় গত ৬ মে রাজধানীর বনানী থানায় সাফাত আহমেদ, নাঈম আশরাফ ও সাদমান সাকিফসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তারা। মামলার পর থেকেই পলাতক ছিলেন আসামিরা।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই