মেইন ম্যেনু

বরখাস্ত আফ্রিদি, বিদায় ওয়াকার

এশিয়া কাপের পর বিশ্বকাপে পুরোপুরি ব্যর্থ পাকিস্তান ক্রিকেট দল। দলের এমন ব্যর্থতায় সমর্থকদের পাশাপাশি ক্ষুব্ধ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। দলের পাশাপাশি বল ও ব্যাট হাতে ব্যর্থ পাক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদিও। দলের ব্যর্থতার এই কারণ খতিয়ে দেখতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) গঠিত তদন্ত কমিটি গঠন করে পিসিবি।

বিশ্বকাপে দলের ব্যর্থতার কারণে পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কের পদ থেকে শহীদ আফ্রিদিকে বরখাস্ত করেছে পিসিবি। দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে সরফরাজ আহমেদকে। সেই সঙ্গে কোচ ওয়াকের ইউনিসকেও আর রাখা হচ্ছে না। মে মাসে তার চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে। শুক্রবার পিসিবির বোর্ড সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কিন্তু এই ঘোষণা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে দেয়া হয়নি। তবে শীঘ্রই এই ঘোষণা আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের গণমাধ্যম ‘পাকিস্তান টুডে’।

পত্রিকাটির প্রকাশিত খবরে আরো বলা হয়েছে, আসন্ন মে মাস থেকে থেকে মহসিন খানকে প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব দেয়া হবে। এছাড়া দলের প্রধান কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হবে আকিব জাভেদকে।

এর আগে, এশিয়া কাপ-বিশ্বকাপের পর পাকিস্তান দলের ব্যর্থতা নিয়ে তদন্ত কমিটি করার সিদ্ধান্ত নেয় পিসিবি। সেই কমিটি শুক্রবার তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে বোর্ড চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খানের কাছে। প্রতিবেদনে কয়েকজন খেলোয়াড়ের কথা বলা হয়েছে, যারা এশিয়া কাপ এবং বিশ্বকাপের সময় নিয়ম শৃঙ্খলার তোয়াক্কা করেননি।

তদন্ত কমিটির কাছে কোচ ওয়াকার দাবি করেন, মোহাম্মদ হাফিজ তার ইনজুরির কথা গোপন রেখে খেলতে নামেন। পাশাপাশি তিনি জানান দায়িত্ব থেকে সরে যেতে আপত্তি নেই তার। বললেন, ‘আমি সরে গেলে যদি দলের ভাল হয়, তবে দেরি না করে সেটাই করা হোক।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেন থেকেই বিদায় নেয় পাকিস্তান। চার ম্যাচের তিনটিতেই হেরে যায় তারা। এশিয়া কাপেও একই অবস্থা। মাত্র দুটি ম্যাচে জয় পায় আফ্রিদি বাহিনী।