মেইন ম্যেনু

বরিশালে চাকরির প্রলোভনে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

নার্সের চাকরি পাইয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়া থেকে বরিশালে এনে এক স্কুল ছাত্রীকে (১৬) চারদিন আটকে রেখে ধর্ষণ করার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গৌরনদী থানা পুলিশ ধর্ষক হুমায়ুন সরদারকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন। গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. সাজ্জাদ হোসেন ধর্ষিতার বরাত দিয়ে জানান, গৌরনদী উপজেলার বাসুদেবপাড়া গ্রামের সোবাহান সরদারের পুত্র হুমায়ুন সরদারের সাথে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলা সদরের বাসিন্দা নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীর দীর্ঘদিন পূর্বে পরিচয় হয়।

সে-সুবাধে ওই ছাত্রীর পরিবারের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে হুমায়ুন তাকে (স্কুল ছাত্রী) নার্সিংয়ে চাকরি পাইয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখায়। চাকুরির প্রলোভনে পড়ে ওই স্কুলছাত্রী শুক্রবার দুপুরে তার গ্রামের বাড়ি থেকে গৌরনদীতে আসেন। ওইদিনই স্কুল ছাত্রীকে বরিশাল নগরীর একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে জোড়পূর্বক শুক্র ও শনিবার ধর্ষণ করে হুমায়ুন।

ওসি আরও জানান, রবিবার হোটেল থেকে স্কুল ছাত্রীকে হুমায়ুন তার বাড়িতে এনে আবারো ধর্ষণ করে। সোমবার কৌশলে স্কুল ছাত্রী মোবাইল ফোনে বিষয়টি তার বাড়ির লোকজনদের জানায়।

পরবর্তীতে তার স্বজনেরা এসে থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন। তাৎক্ষনিক পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষিতাকে উদ্ধার ও ধর্ষক হুমায়ুনকে গ্রেফতার করেন। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদি হয়ে গৌরনদী থানায় মামলা দায়ের করেছেন।