মেইন ম্যেনু

‘বললাম মাথাব্যথা, বস দিলেন যৌন উত্তেজক ঔষধ’

একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে এক বছর ধরে কাজ করছেন ২২ বছরের তরুণী ইনচারা (ছদ্মনাম)। একদিন তাঁর প্রচণ্ড মাথাব্যথা, তাই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার (বস) কাছে গিয়ে ওষুধ কিনতে যাওয়ার জন্য ছুটি চাইলেন। জবাবে ছুটি না দিয়ে বস মেয়েটির হাতে ধরিয়ে দিলেন একটি যৌন উত্তেজক ভায়াগ্রা বড়ি!

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বেঙ্গালুরুর জালাহাল্লি এলাকায়। এ ঘটনায় ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ইনচারা।

তরুণীর অভিযোগ, চার মাস ধরে তাঁকে তাঁর প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক মালাপ্পা যৌন হেনস্তা করছেন। অফিসে কেউ না থাকলে তাঁর ওড়না ধরে টানতেন, অযাচিত স্পর্শ করতেন।

সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, ইনচারার বাবা মারা যাওয়ার পর মালাপ্পা তাঁকে বিয়ের প্রস্তাবও দেন। যৌন সম্পর্কের বিনিময়ে অর্থ এবং স্থায়ী চাকরির লোভ দেখান। যদিও যুক্তরাষ্ট্রে তাঁর স্ত্রী রয়েছেন।

ইনচারা বলেন, ‘আমি অসহায় ছিলাম। মাসের পর মাস মালাপ্পার হেনস্তা সহ্য করা ছাড়া আমরা কোনো উপায় ছিল না। আমি জানতাম, তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে কেউ আমার কথা বিশ্বাস করবে না। কারণ, তিনি আমার প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক; বরং আমাকে তৎক্ষণাৎ চাকরিচ্যুত করা হতো।’

ওই দিনের ঘটনা সম্পর্কে ইনচারা বলেন, ‘মালাপ্পাকে প্রচণ্ড মাথাব্যথার কথা বলে ওষুধ কিনতে যেতে চাই। কিন্তু তিনি তাঁর ড্রয়ার থেকে একটি ভায়াগ্রা বড়ি বের করে আমার হাতে দিয়ে বলেন, যাও খেয়ে আমার কাছে আসো। মাথাব্যথা সেরে যাবে।’