মেইন ম্যেনু

বলিউড সিনেমায় ১০ অসম জুটি

বলিউডের জুটি মানেই সকলের মনে ভেসে ওঠে শাহরুখ-কাজল, আমির-জুহি, সালমান-ঐশ্বরিয়া অথবা রণবীর-দীপিকার নাম। বলিউড সিনেমায় বেশ সফল এ জুটিগুলো। তাদের একসঙ্গে পর্দায় হাজির মানেই যেন হিট সিনেমা। পর্দায় এ জুটির রোমান্স দেখার জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষা করেন দর্শকরা।

কিন্তু এ জুটিগুলোর বাইরেও বলিউডে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জুটিকে দেখা গেছে। অনেক সময় সফলও হয়েছে জুটিগুলো। শুধু তাই নয়, সিনেমায় কিছু অসম জুটিকেও দেখেছে বলিউড দর্শকরা। প্রথমে জুটিগুলোর নাম শুনে অবাক হলেও শেষ পর্যন্ত ভালোভাবেই গ্রহণ করেছেন দর্শকরা। এমনকি বক্স অফিসেও সফল হয়েছে অসম জুটির সিনেমাগুলো। বলিউডে এরকম দশ অসম জুটি নিয়ে আমাদের আজকের রচনা।

অমিতাভ বচ্চন-জিয়া খান (নিঃশব্দ) : অভিতাভ বচ্চনের সঙ্গে সিনেমাটিতে জুটিবদ্ধ হয়েছিলেন জিয়া খান। তা দেখে অনেকের চোখ তখন কপালে উঠেছিল। কারণ অমিতাভের বয়স তখন ছিল ৬৫ আর জিয়া খানের ১৯ বছর। এ সিনেমার মাধ্যমেই বলিউডে অভিষেক হয়েছিল জিয়া খানের। অবশ্য সকল বিতর্কের অবসান ঘটিয়ে বক্স অফিসে ভালোই ব্যবসা করেছিল সিনেমাটি।

অমিতাভ বচ্চন-টাবু (চিনি কম) : এ সিনেমায় জুটিবদ্ধ হয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন এবং টাবু। সিনেমায় টাবুর বাবা পরেশ রাওয়ালের চেয়ে বয়সে বড় ছিল অমিতাভ। কিন্তু সমালোচকদের কাছ থেকে ভালো সাড়া পেয়েছিল সিনেমাটি।

বিদ্যা বালান-নাসিরউদ্দিন শাহ (দ্য ডার্টি পিকচার) : ভাবা যায়, নাসিরউদ্দিন শাহের বিপরীতে বিদ্যা বালান! বয়সে নাসিরউদ্দিন শাহ এর অর্ধেক বিদ্যা। তবে ডার্টি পিকচার সিনেমাটিতে ঠিকই জুটি বদ্ধ হয়েছিলেন তারা। দর্শকরা অবশ্য ঠিকই গ্রহণ করেছিলেন এ জুটিকে। সে বছরের সেরা সিনেমা হয়েছিল ডার্টি পিকচার।

রণবীর কাপুর-কঙ্কনা সেন (ওয়েক আপ সিড) : রণবীর কাপুরের বিপরীতে কঙ্কনা সেন শর্মা। বিষয়টিতে অবাক হয়েছিলেন অনেকেই। কিন্তু সিনেমার গল্পে দুজনের চরিত্র এতটাই সাবলীল ছিল যে তা বেশ দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিল।

দীপিকা পাড়ুকোন-ইরফান খান (পিকু) : সিনেমাটি নির্মাণের আগে অভিনয় শিল্পীদের নাম দেখেই অনেকে বিভিন্ন মন্তব্য করেছিলেন। অনেকেই বলেছিলেন দীপিকাকে চরিত্রটিতে একেবারেই মানাবে না। কিন্তু দক্ষ নির্মাণ কৌশল এবং অভিনয়ে মুগ্ধ হয়েছেন দর্শকরা। ফলাফল বক্স অফিসে সুপার হিট পিকু। সিনেমায় ইরফান খানের বিপরীতে দেখা গিয়েছিল দীপিকাকে।

কারিনা কাপুর-অর্জুন কাপুর (কি অ্যান্ড কা) : এ সিনেমায় জুটিবন্ধ হয়েছেন কারিনা কাপুর খান এবং অর্জুন কাপুর। বলিউড সিনেমায় অসম এ জুটিকে ঘিরে নানা জনের নানা প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। অর্জুন যেখানে আলিয়া বা দীপিকার সঙ্গে জুটিবদ্ধ হয়ে সিনেমা করছেন তিনি কিনা কারিনার সঙ্গে জুটিবদ্ধ হচ্ছেন! এখন অপেক্ষার পালা দর্শক কতটুকু গ্রহণ করেন এ জুটিকে।

কারিনা কাপুর-দিলজিত সিং (উড়তা পাঞ্জাব) : এই সিনেমাটিতে জুটিবদ্ধ হয়েছেন কারিনা কাপুর এবং পাঞ্জাবের জনপ্রিয় অভিনেতা দিলজিত সিং। অনেকের মতে জুটিটি একটু অন্য রকম। কারণ কারিনাকে বেশির ভাগ সময়েই দেখা যায় শাহরুখ খান, সালমান খান, আমির খান অথবা সাইফ আলি খানের সঙ্গে সেখানে দলজিত সিংয়ের সঙ্গে জুটি অনেকটাই প্রমকপ্রদ।

রণবীর কাপুর-ঐশ্বরিয়া রাই ( অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল) : রণবীর কাপুর এবং ঐশ্বরিয়াকে জুটিবদ্ধ অবস্থায় দেখা যাবে অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল সিনেমায়। ঐশ্বরিয়ার তুলনায় বয়সে অনেক ছোট রণবীর কাপুর। এখন দেখার অপেক্ষা সিনেমায় তাদের চরিত্র কেমন থাকে। অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল সিনেমার অন্য একটি চরিত্রে দেখা যাবে আনুশকা শর্মাকে।

সানি লিওন-নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী : প্রযোজক এবং পরিচালক হিসেবে সোহেল খান বলিউডে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। তার সিনেমায় সানি লিওন অভিনয় করবেন শুনে অনেকের চোখ কপালে উঠেছে। তার ওপর সানির বিপরীতে অভিনয় করবেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। দুজনেই দুই মেরুর অভিনয় শিল্পী। দেখা যাক চিত্রনাট্য কীভাবে তাদের এক করে এবং দর্শকরা কেমনভাবে নেয় জুটিটি।

শাহরুখ খান-আলিয়া ভাট : বলিউডের জনপ্রিয় পরিচালক গৌরি সিন্ডের পরবর্তী সিনেমায় দেখা যাবে আলিয়া ভাট এবং শাহরুখ খানকে। যদিও তাদের পরস্পরের বিপরীতে দেখা যাবে কিনা তা এখনও ঠিক হয়নি। তবে গুঞ্জন চলছে সিনেমায় পরম্পরের বিপরীতে দেখা যাবে তাদের। আর যদি তা হয় তাহলে তা যে বলিউডের অন্যতম অসম জুটি হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।