মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশকে বিপজ্জনক দল বললেন স্টিভেন স্মিথ

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড এবং খেলোয়াড়দের মধ্যেকার ‘সঙ্কট’ কেটে গিয়েছে। ফলে স্বস্তি ফিরেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটেও। কারণটা সবারই জানা। টাইগারদের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে আগামী ১৮ আগস্ট ঢাকায় আসবে স্টিভেন স্মিথের দল। তার আগে এক সপ্তাহের অনুশীলন ক্যাম্প করবে অসিরা। অবশ্য অনেক আগে থেকেই নিজেদের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে মুশফিকুর রহীমের দল। সাবেক অসি টেস্ট কিংবদন্তী ইয়ান চ্যাপেলের ধারণা অস্ট্রেলিয়া দলের আসন্ন বাংলাদেশ সফরটা বেশ কঠিন হবে। এবার এই গ্রেটের সাথে সুর মেলালেন অস্ট্রেলীয় টেস্ট অধিনায়ক।

ফক্স স্পোর্টসে এক কলামে স্টিভেন স্মিথ লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ অবশ্যই বিপজ্জনক দল। গত কয়েক বছরে তারা উল্লেখযোগ্য উন্নতি করেছে। বিশেষ করে ঘরের মাঠে সাকিবরা খুবই শক্তিশালী। গত বছর ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত টেস্টে তারা ইংল্যান্ডকে পর্যুদস্ত করেছে।’

স্মিথ এখন তাঁর দল নিয়ে ফিটনেস ও মনঃসংযোগের কাজ করছেন। পারিশ্রমিক নিয়ে বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্ব মিটে যাওয়ায় ভীষণ স্বস্তিবোধ করছেন স্মিথ। পেশাদারি ক্যারিয়ার শুরুর পর তিনি কখনো এত দীর্ঘ সময় ক্রিকেটের বাইরে থাকেননি। স্মিথ বলেন, ‘প্রায় দুই মাস ব্যাট হাতে নিইনি, এটা আমার ক্ষেত্রে বিরল। কখনো এতটা দীর্ঘ সময় ক্রিকেটের বাইরে ছিলাম না, এ কারণে ব্যাট ধরতে মুখিয়ে আছি।’

বাংলাদেশ সফরে আসার আগে ডারউইনে এক সপ্তাহের ক্যাম্প করবে অস্ট্রেলিয়া। এই ক্যাম্প শেষ করেই সদলবলে স্মিথরা বাংলাদেশের বিমান ধরবেন। মিচেল স্টার্ক, জেমস প্যাটিনসনরা চোটে ছিটকে পড়লেও অস্ট্রেলিয়া শক্তিশালী দলই নিয়ে আসছে।

উল্লেখ্য, বোর্ডের সঙ্গে চুক্তি না হলে অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়রা বাংলাদেশ সফর বয়কটের হুমকি দিয়ে রেখেছিল। দেনা-পাওনা সমস্যার সমাধান হওয়ার পর এটাই হবে অস্ট্রেলিয়া দলের প্রথম সফর। চার মাস আগে ভারত সফরে জার টেস্টের সিরিজে পরাজিত হওয়ার পর থেকেই স্মিথ এবং তার দলের অধিকাংশ সদস্য লংগার ভার্সনের বাইরে আছে। গত মাসে নির্ধারিত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের জন্য টেস্ট দলের কতিপয় সদস্যকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। কিন্তু খেলোয়াড়দের বয়কটের কারণে সে সফর বাতিল হয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই