মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশি ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন: অধ্যাপক বরখাস্ত

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে অভিযুক্ত ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপককে বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে কারও পরিচয় এখনো প্রকাশ করেনি কর্তৃপক্ষ।

বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে জানা যায়, বাংলাদেশি ওই ছাত্রী বরখাস্ত হওয়া অধ্যাপকের অধীনে গবেষণা করছিলেন। বেশ কিছুদিন আগে অধ্যাপকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন। তদন্তের পর অধ্যাপক দোষী প্রমাণিত হলে তাকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ।

দিল্লির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং খ্যাতনামা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশের বহু শিক্ষার্থী দিল্লির এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা ও গবেষণা করছেন।

ভারতে যৌন নির্যাতনের ঘটনা নতুন কিছু নয়। তবে দেশটির যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এসেছে এদের মধ্যে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় সবচেয়ে বেশি অভিযুক্ত। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার ও দিল্লি সরকার উভয়ের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যে তা নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গত বছর দিল্লির ১৬টি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ১শ’রও বেশি যৌন হয়রানির অভিযোগ জমা পড়েছে। এর মধ্যে ৫০ এর বেশি অভিযোগ এসেছে শুধু জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে।

তবে ভারতে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক বরখাস্ত করার ঘটনা বেশ বিরল।