মেইন ম্যেনু

‘বাংলাদেশি জাহাজে নজরদারি করা প্রয়োজন’

সুন্দরবনের ভারতীয় অংশের পাশ দিয়ে এবং উজানে অর্থাৎ ভারতের দিকে যাওয়া বাংলাদেশি পণ্যবাহী জাহাজের গতিবিধির ওপর নজরদারির কথা বলেছেন সে দেশের নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তা।

২০০৮ সালের ২৬ নভেম্বর মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলার (২৬/১১) মতো ঘটনা ঠেকাতে এটি করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গের ন্যাভাল অফিসার ইনচার্জ কমোডর রবি আহলুওয়ালিয়া বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

রবি আহলুওয়ালিয়া বলেন, সম্প্রতি রিভার সি ভেসেল (আরএসভি) চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে জাহাজ চলাচল করছে। তবে ওই সব জাহাজে কোনো ট্রান্সপন্ডার (তথ্য আদান-প্রদানের জন্য এক ধরনের ওয়ারলেস ব্যবস্থা) থাকে না। বাংলাদেশি জাহাজে এ ধরনের নজরদারিমূলক ব্যবস্থা রাখার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী কি না— সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে আহলুওয়ালিয়া বলেন, নৌ স্বার্থ সুরক্ষার জন্য এটি থাকা উচিত।

তিনি বলেন, ‘জাহাজে ট্রান্সপন্ডার বসানো একটি প্রয়োজনীয় বিষয়। ইতিমধ্যে জাহাজে এটি বসানোর দাবি মেনে নেওয়ায় এটি অবশ্যই হবে। নৌ স্বার্থ সুরক্ষার জন্য জাহাজে ট্রান্সপন্ডার থাকতেই হবে। অন্যথায় মুম্বাই হামলার মতো আরও ঘটনা ঘটতে পারে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের জাহাজগুলো হেমনগর চেকপয়েন্ট দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে। এসব জাহাজ পরে কলকাতার হুগলি বন্দরে যায়।