মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ নিয়ে ব্রিটিশ দৈনিকের আপত্তিকর প্রতিবেদন

বাংলাদেশে সাম্প্রতিক বৃদ্ধি পাওয়া গুপ্তহত্যা নিয়ে আপত্তিকর প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটেনের প্রথম সারির একটি দৈনিক। মঙ্গলবার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বাংলাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আলোচনায় অংশ নেওয়া দেশটির একজন সংসদ সদস্যের বরাত দেশটির প্রভাবশালী দৈনিক এক্সপ্রেস এক প্রতিবেদনে বলছে, বাংলাদেশে গৃহযুদ্ধ ছড়িয়ে পড়তে পারে।

এতে আরো বলা হয়, বাংলাদেশে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা চুপসে যাচ্ছে। দেশটিতে সুশীল সমাজের জায়গা দখলে নিয়েছে চরমপন্থী জঙ্গিরা। বাংলাদেশে রাজনৈতিক সংঘাত ছড়িয়ে পড়ায় সংখ্যালঘুদের ওপর চাপাতি ও ছুরিকাঘাতের ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটছে।

লেবার পার্টির সংসদ সদস্য সিমন ড্যান্সজুক এশিয়ায় গৃহযুদ্ধের আশঙ্কাও প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, গৃহযুদ্ধ ছড়িয়ে পড়লে অনেক আশ্রয়প্রার্থী ব্রিটেনে পৌঁছানোর চেষ্টা করবে। ২০১১ সালে ব্রিটেনের সর্বশেষ শুমারিতে বলা হয়, দেশটিতে বৈধ-অবৈধ মিলে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রয়েছেন।

রচডেল আসনের এই সাংসদ বলেন, আমাদের এখানে যে অভিবাসন সমস্যা আছে তার অবমূল্যায়ন করা উচিত নয়। আমাদের এখানে ইতোমধ্যে ব্যাপক সংখ্যক প্রবাসী রয়েছে এবং বাংলাদেশে ১৬ কোটিরও বেশি মানুষের বসবাস। যদি সেখানে (বাংলাদেশে) গৃহযুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ে তাহলে দেশটির অনেক আশ্রয়প্রার্থী ব্রিটেনে আসার চেষ্টা করবে।

বাংলাদেশে গৃহযুদ্ধ শুরু হলে তা ব্রিটেনকে প্রভাবিত করতে পারে বলে গত বছর লেবার পার্টি থেকে বহিষ্কার হওয়া এই সংসদ সদস্য সতর্ক করে দিয়েছেন। তিনি বলেন, কারণ বাংলাদেশে সুশীল সমাজ সংকুচিত হচ্ছে, আর এদের জায়গা দখলে নিচ্ছে চরমপন্থীরা।

এই সংসদ সদস্য আরো বলেন, ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিগোষ্ঠী বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি চাপাতি ও ছুরিকাঘাতে হত্যার দায় স্বীকার করেছে। তবে বাংলাদেশের সরকারি কর্মকর্তারা এই গোষ্ঠীটির দায় স্বীকারকে নাকচ করে দিয়েছে।