মেইন ম্যেনু

বাচ্চাদের স্তনদানে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে

যেসব নারীরা শিশুদের বুকের দুধ খাওয়ান তাদের ২০ শতাংশ জটিল হরমোন রিসেপ্টর নেগেটিভ স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নতুন এক গবেষণায় এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

৫০ বছরের নীচে নারীদের জন্য হরমোন রিসেপ্টর নেগেটিভ (এইচআরএন) স্তন ক্যান্সার মারাত্মক হুমকি।

এইচআরএন স্তন ক্যান্সার স্বাস্থ্যের জন্য খুবই মারাত্মক। যদি এই ধরনের স্তন ক্যান্সার দেরিতে ধরা পড়ে তাহলে এর চিকিৎসার কোনো পথ খোলা থাকে না। প্রচলিত থেরাপিতেও উপশম পাওয়া যায় না।

গবেষক দলের একজন যুক্তরাষ্ট্র পেনসেলভিনার লেনকেনাউ মেডিকেল সেন্টারের চিকিৎসক মারিসা ওয়েস বলেন, স্তনদান একটি সহজ ও স্বল্পমেয়াদি পদ্ধতি যা স্তন ক্যান্সারের বিরুদ্ধে প্রাকৃতিকভাবে দীর্ঘমেয়াদে কাজ করে।

২৭টি পৃথক গবেষণা থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে। ৩৬ হাজার স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের ওপর এই গবেষণা চালানো হয়।

গবেষণার বিশ্লেষণে দেখা যায়, হরমোন রিসেপ্টর নেগেটিভ নামক স্তন ক্যান্সারের প্রবণতা তরুণীদের মধ্যে বেশি পাওয়া গেছে। অন্যান্য স্তন ক্যান্সারের চেয়ে এই ক্যান্সারে আরোগ্য হওয়ার সম্ভাবনা কম।

মারিসা ওয়েস অবশ্য এও বলেছেন, দীর্ঘমেয়াদি স্তনদান জটিল ক্যান্সারের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমাতে কার্যকর এটি প্রমাণে আরও তথ্য প্রমাণের দরকার রয়েছে।

গবেষকরা বলেছেন, মহিলা ও তরুণীরা শিশুদের স্তনদান করলে যেসব স্বাস্থ্যগত সুবিধা পাওয়া যায় তা জনস্বাস্থ্য বিভাগকে প্রচারের ব্যবস্থা করতে হবে। আর যারা এই ব্যাপারটি জানেন তাদের উচিৎ চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি পরিষ্কার হওয়া।

তবে গবেষকরা পরামর্শ দিয়েছেন, বাড়ি ও কর্মস্থলে নারীদের স্তনদানে যেসব প্রতিবন্ধকতা আছে তা দূর করতে আরও বেশি ভূমিকা নেওয়া উচিৎ।