মেইন ম্যেনু

বান্ধবীকে গর্ভবতি হতে বাধ্য করলো ভারতীয় অধিনায়ক

জাতীয় হকি দলের অধিনায়ক সর্দার সিংয়ের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন তারই ব্রিটিশ বান্ধবী। লুধিয়ানার একটি থানায় অভিযোগ দায়ের করে ব্রিটিশ তরুণীর দাবি, তাকে গর্ভপাতে বাধ্য করেছেন সর্দার সিং।

২১ বছর বয়সী ব্রিটিশ তরুণীর অভিযোগ পাওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে লুধিয়ানা পুলিশ। বিষয়টির তদন্ত শুরু হয়েছে। কিন্তু ভারতীয় হকি দলের ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে কোনও এফআইআর দায়ের হয়নি।

ব্রিটিশ তরুণীর সঙ্গে এনগেজমেন্টও হয়ে গিয়েছিল সর্দার সিংয়ের। ব্রিটিশ তরুণীর পুলিশকে বলেছেন, ‘আমার সঙ্গে সর্দারের আলাপ হয়েছিল লন্ডন অলিম্পিকসের সময়।

পরস্পরকে আরও কাছ থেকে জানার পর আমরা এনগেজড হই। কিন্তু ২০১৫ সালে আমি গর্ভবতী হওয়ায় সর্দার আমাকে গর্ভপাত করানোর জন্য চাপ দিতে থাকে।

কারও সমর্থন না পেয়ে অনিচ্ছা সত্ত্বেও আমি গর্ভপাত করাতে বাধ্য হই।’ ব্রিটিশ তরুণীর আরও অভিযোগ, গর্ভপাতের পরই তার সঙ্গে সর্দার সিং যোগাযোগ কমাতে শুরু করেন। সর্দার তাকে মানসিক এবং শারীরিক নির্যাতন করত বলেও তাঁর দাবি।

সর্দার সিং অবশ্য সব অভিযোগ নস্যাৎ করেছেন। ব্রিটিশ তরুণীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা সরাসরি অস্বীকার করেননি ভারতের হকি ক্যাপ্টেন। কিন্তু শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ তিনি উড়িয়ে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘এই সব অভিযোগ নিয়ে আমি ভাবতে চাইছি না। আমি এখন শুধু রিও অলিম্পিকসের কথা ভাবছি।’ সর্দারের ব্রিটিশ বান্ধবী অবশ্য বলছেন, ‘আশা করি আমি সুবিচার পাব।