মেইন ম্যেনু

বাবাকে না দেখেই চলে গেল পূজা

অবশেষে না ফেরার দেশে চলে গেল চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ের অগ্নিদগ্ধ পূজা রাণী শীল (১৩)। ১২দিন মৃত্যুযন্ত্রণা ভোগ করে শুক্রবার ১৫ এপ্রিল বিকাল পৌনে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় পূজার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, ৪ এপ্রিল রাত ১০টায় দিকে ঘরে বিদ্যুৎ চলে যায়। অন্ধকারে কেরোসিনের চেরাগ জ্বালিয়ে তেল ঢালার সময় আগুন ধরে যায় পূজার সারা শরীরে। এরপর পূজার ঠাঁই হয় চমেকের হাসপাতালে বার্ন ইউনিটে। আগুনে পূজার শরীরের ৬০% পুড়ে গিয়েছিল।

পূজা মিরসরাই পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের (বটতল) রণজিৎ ডাক্তার বাড়ির স্বর্গীয় দিলীপ চন্দ শীল ও রিনা রাণী শীলের একমাত্র মেয়ে। তার বাবা ভারত থেকে এসে রিনাকে বিয়ে করে রিনার বাপের বাড়িতে থেকে যান। পূজা মায়ের গর্ভে এলে তার বাবা মাকে রেখে চলে যায়। পূজার জীবনে আর বাবাকে দেখেনি। এরপর মামা অরুণ চন্দ্র শীল সেলুনে চাকরি করে বোন-ভাগনিকে আগলে রাখেন।

অরুণ জানান, পূজার লাশ হাসপাতাল থেকে মীরসরাইয়ের গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হচ্ছে।