মেইন ম্যেনু

বালিয়াকান্দিতে বাবা অসুস্থ থাকায় অন্নের সন্ধানে দু,সহদর বেরিয়ে আহত

যাদের হাতে থাকার কথা বই, খাতা, কলম। স্কুলে যাওয়ার কথা। কিন্তু পরিবারের একমাত্র উপার্জন ক্ষম অসুস্থ। পেটের জ্বালা সইতে না পেরে উপায়ন্ত না পেয়ে বাবার ভ্যান নিয়ে দুই শিশু সহদর রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে। বিধিবাম ২জন পেছেঞ্জার নিয়ে আসতে রাস্তায় গরুর দড়িতে বেধে ছিটকে পড়ে মারাত্বক আহত হয়।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের পাটুরিয়া স্কুলের সামনে। আহত ওই দুই শিশুর নাম হাসান (৯) ও মামুন (১১)। তার পিতার নাম শহীদ মোল্যা। বাড়ী উপজেলার চরগুয়াদহ গ্রামে। তাদেরকে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত হাসান ও মামুন জানায়, তার বাবা শহিদ মোল্যা ভ্যান চালিয়ে ৪সদস্যর সংসার চালায়। বাড়ীর মাথা গোজার ঠাই টুকু ছাড়া কিছু নেই। কয়েকদিন যাবৎ তার বাবা অসুস্থ। ঘরে খাবার না থাকায় ও কিস্তির টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় চরম বিপাকে পড়ে পরিবারটি। উপায়ন্ত না পেয়ে দু,ভাই বাবার ভ্যান নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে। একভাই ভ্যান চালায় অন্যজন পিছন থেকে ঠেলে।

পাটুরিয়া স্কুল এলাকা থেকে দুইজন পেছেঞ্জার নিয়ে আড়কান্দি বাজারে আসার পথে রাস্তায় বাধা গরুর দড়ির সাথে জড়িয়ে পড়ে। ভ্যানে থাকা দুই যাত্রী লাফ দিয়ে রক্ষা পেলেও দুই সহদর নিয়ন্ত্রন হারিয়ে খাদে পড়ে মারাত্বক আহত হয়। স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে।