মেইন ম্যেনু

বিআরটিএর ৮৩ লাখ টাকার ট্যাক্স উধাও!

রাজধানীর মিরপুরের বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) যানবাহন কর শাখার ৮৩ লাখ ২৬ হাজার টাকার কোনো হদিস পাওয়া যাচ্ছে না। ভুয়া ট্যাক্স টোকেন ইস্যুর মাধ্যমে ওই টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে। অভিযোগের তির প্রতিষ্ঠানটির মিরপুর উপডাকঘরের দায়িত্বপ্রাপ্ত একাধিক কর্মচারীর বিরুদ্ধে।

এমন সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে সম্প্রতি দুদকের প্রধান কার্যালয়ে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দুদকের উপপরিচালক মোহাম্মদ আবদুস সোবহানকে অনুসন্ধান কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। দুদকের একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এ বিষয়ে দুদক সূত্রে জানা যায়. বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) মিরপুর উপডাকঘরের বিভিন্ন সময়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারীরা পরস্পর যোগসাজশে ভুয়া ট্যাক্স টোকেন ইস্যুর মাধ্যমে যানবাহন কর বাবদ ওই শাখা থেকে ৮৩ লাখ ২৬ হাজার ৫০০ টাকা আত্মসাৎ করেন। চলতি বছরের ২৯ মার্চ ডেপুটি পোস্টমাস্টার জেনারেলের (ঢাকা নগরী উত্তর বিভাগ) পক্ষ এমন অভিযোগ করা হয়। যার পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের মার্চ মাসে অভিযোগটি যাচাই-বাছাই কমিটিতে নেওয়া হয়। পরবর্তী সময়ে অভিযোগটি যুক্তিযুক্ত মনে হওয়ায় অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। এর পরই চলতি সপ্তাহে দুদকের উপপরিচালক মোহাম্মদ আবদুস সোবহানকে অনুসন্ধানের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে দুদকের পরিচালক মোহাম্মদ বেলাল হোসেনকে তদারককারী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।