মেইন ম্যেনু

বিএনপিতে পদ পাচ্ছেন আলোচিত পাঁচ তারকা

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করার পর সরকার পতনের আন্দোলনে নেমে ব্যর্থ হয়ে ঘরে ফেরা বিএনপির ভাবনা এখন জাতীয় কাউন্সিল নিয়ে। সব ঠিকঠাক থাকলে আসছে ১৯ মার্চ এ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। জোর গুঞ্জন রয়েছে, এই কাউন্সিলে দেশের আলোচিত পাঁচজন তারকাকে দলের গুরুত্বপূর্ণ পদ দেবে বিএনপি। দলীয় সূত্রে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রতিবেশি দেশ ভারতে অভিনেতা, অভিনেত্রী, সঙ্গীত শিল্পীদের রাজনীতিতে সক্রিয়তার প্রচুর দৃষ্টান্ত পাওয়া গেলেও বাংলাদেশে সে হার তুলনামূলক কম। আর আসন্ন কাউন্সিলে বিএনপি যে পাঁচ তারকাকে দলে পদ দিচ্ছে তাদের অনেকেই একসময়ে ঝড় তুলেছেন বিনোদন জগতে। এবার তারা রাজপথের প্রধান বিরোধী শক্তি বিএনপির রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়ে দেশের রাজনীতিতে সরাসরি ভূমিকা রাখতে যাচ্ছেন।

যে পাঁচ তারকা বিএনপিতে পদ পেতে পারেন তারা হলেন- কণ্ঠশিল্পী মনির খান, ফুটবলার আমিনুল ইসলাম, কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন, কনক চাঁপা ও জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব গাজী মাজহারুল আনোয়ার। এছাড়া চলচ্চিত্র অভিনেতা আশরাফ উদ্দিন উজ্জ্বল, হেলাল খান, শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা, বাবুল আহমেদের নামও শোনা যাচ্ছে।

এদের মধ্যে বেবী নাজনীন ও হেলাল খান গতবছর বিএনপির সরকারবিরোধী আন্দোলন চলার সময়ে পুলিশের হাতে আটক হয়েছিলেন। বেবী নাজনীন আটক হয়েছিলেন গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে থেকে এবং হেলাল খান আটক হয়েছিলেন জজকোর্ট এলাকা থেকে; রুহুল কবির রিজভীর সঙ্গে দেখা করে ফেরার পথে।

এদিকে নির্বাহী কমিটির সদস্য হওয়ার পরও নিষ্ক্রিয় থাকার কারণে এবার জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরকে কমিটির বাইরে রাখা হবে বলেও গুঞ্জন উঠেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) রাজনীতিতে সক্রিয় এক নেতা জানান, তারকাদের মধ্যে যারা সত্যিকার অর্থে তাদের শ্রম, মেধা ও যোগ্যতা দেখিয়েছেন তাদের গুরুত্বপূর্ণ পদে পদায়ন করা সম্ভব হলে পরবর্তীতে আরো অনেকে হয়তো ভালো করে রাজনীতি করার আগ্রহ পাবে।

এ বিষয়ে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, যোগ্যতা অনুসারে নবগঠিত কমিটিতে অনেককেই স্থান দেয়া হবে। এক্ষেত্রে পদ পেতে যে বিষয়গুলো দেখভাল করার নির্দেশ দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, তা মেনেই পদায়ন করা হবে।