মেইন ম্যেনু

বিএনপির কমিটি : পুরোনো মুখ ৩ নতুন ১২

প্রায় সাত বছর পর গত ১৯ মার্চ দেশের বৃহৎ রাজনৈতিক দল জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। এ কাউন্সিলের ভেতর দিয়ে দলের চেয়ারপারসন ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুনঃনির্বাচিত হন যথাক্রমে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান।

কাউন্সিল পরবর্তী গত ৩০ মার্চ দলটির পূর্ণাঙ্গ মহাসচিব হিসেবে মনোনীত হন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব হন রুহুল কবীর রিজভী। যদিও ভারমুক্ত হয়ে ওই দিনই পল্টন থানার নাশকতার দুই মামলায় মির্জা ফখরুলকে কারাগারে যেতে হয়। অবশ্য একইদিন তিনি কারামুক্তও হন।

লম্বা সময়ের সাংগঠনিক অস্থিতিশীলতা কাটিয়ে দলটি আবারো রাজনৈতিকভাবে গুছিয়ে উঠতে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যায়ে তৎপরতা শুরু করেছে।

এরই ধারবাহিকতায় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অনুমোদনক্রমে এবার দলের যুগ্ম মহাসচিব পদে ৭ জন ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ৮ জনকে মনোনীত করা হয়েছে। এই দুই পদে মনোনীত ১৫ জনের মধ্যে মাত্র ৩ জন পুরোনো রয়েছেন। তারা নিজ পদেই বহাল আছেন। এই তিনজন হলেন- যুগ্ম মহাসচিব পদে ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন এবং সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ফজলুল হক মিলন ও আসাদুল হাবিব দুলু।

শনিবার (৯ এপিল) নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে দলের পক্ষে এ নাম ঘোষণা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী।

যুগ্ম মহাসচিব পদে মনোনীতরা হলেন- ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন, মজিবুর রহমান সরোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, হারুনুর রশীদ ও শাহ লায়ন আসলাম চৌধুরী।

সাংগঠনিক সম্পাদক হলেন- ঢাকা বিভাগে ফজলুল হক মিলন, চট্টগ্রামে ডা. শাহাদাত হোসেন, খুলনায় নজরুল ইসলাম মঞ্জু, রাজশাহীতে অ্যাড. রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, বরিশালে বিলকিস শিরিন, রংপুরে আসাদুল হাবিব দুলু, ময়মনসিংহে ইমরান সালেহ প্রিন্স ও ফরিদপুরে শামা ওবায়েদ।

নতুন পদধারীরা এর আগে যে পদে দায়িত্বরত ছিলেন: যুগ্ম মহাসচিবদের মধ্যে মজিবুর রহমান সরোয়ার বিএনপির বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল যুববিষয়ক সম্পাদক, খায়রুল কবির খোকন শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক, হারুনুর রশিদ রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এবং শাহ লায়ন আসলাম চৌধুরী চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক।

তবে মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল যুবদল সভাপতি এবং হাবিব-উন-খান সোহেল ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতির দায়িত্বেও রয়েছেন। এছাড়া পুরোনো কমিটিতে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বিএনপির ৬ নম্বর যুগ্ম মহাসচিব পদে ছিলেন।

এদিকে, নতুন সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে নজরুল ইসলাম মঞ্জু এর আগে বিএনপির খুলনা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক, বিলকিস শিরিন নির্বাহী কমিটির সদস্য, ইমরান সালেহ প্রিন্স সহ-প্রচার সম্পাদক এবং শামা ওবায়েদ নির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। ডা. সাহাদাত হোসেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বেও রয়েছেন।

সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কারো নাম ঘোষণা করা হয়নি। বর্তমানে দায়িত্বরত নেতা ইলিয়াস আলী নিখোঁজ রয়েছেন।