মেইন ম্যেনু

বিএনপি ফাঁদে পড়েছে

‘বিএনপি আসলেই তারা ভারতমুখি নয়, তারা ফাঁদে পড়েছে’ এমন মন্তব্যই করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

সোমবার শিল্পকলার মহড়া কক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত ‘বিএনপি কেন ভারতমুখি?’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘মোদিকে বিএনপির অভিনন্দন জানানোর মানে হচ্ছে- বগা ফান্দে পড়িলে যেমন কান্দে, ঠিক তেমন। আসলেই তারা ভারতমুখি নয়, তারা ফাঁদে পড়েছে। আর তারা নিজেকে রক্ষার জন্য এখন অনেকের পায় ছুঁয়ে প্রণামও করবে, কিন্তু এতে কোনো লাভ হবে না।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উদ্দেশে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ‘আপনি মোদির সঙ্গে সাক্ষাতের সময় কান্নাকাটি করেছেন কি না তা আমি জানি না, আপনি তার পায়ে প্রণাম করেছেন কি না তাও জানি না, তবে যতো কথাই বলুন না কেন আপনারা আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন।’

বিএনপিকে তিনি আরো বলেন, ‘আপনারা আন্তর্জাতিকভাবে প্রতারক দলে রূপান্তিত হয়েছেন। কারণ আপনার বিজেপি প্রধানের সঙ্গে কথা না হওয়ার পরও ঘোষণা দেন যে, তার সঙ্গে কথা হয়েছে। আবার মার্কিন ছয় কংগ্রেসম্যানের স্বাক্ষর জালিয়াতী করে তাদের নামে ছাপিয়েও দেন। তাই আপনারা ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যতোই দেখা করুন, যতোই অনুনয়-বিনুনয় করুন না কেন, এতে কোনো কাজ হবে না।’

বিএনপি এখন পথহারা পথিকের মতো মন্তব্য করে সাবেক এই বন ও পরিবেশমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি নেতাদের কথা ইউটিউবে ফাঁস হয়ে যাচ্ছে। তারাই বলছে- বিএনপি ২০১৯ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় যেতে পারবে না। তারাই বলছে বেগম খালেদা জিয়াকে দিয়ে কিছু হবে না।’

‘শেখ হাসিনার চিন্তা ও আমার চিন্তা এক ও অভিন্ন’ মোদির এমন বক্তব্যে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘তার মানে হচ্ছে ভারত নৈরাজ্যবাদ ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূল এবং দারিদ্র বিমোচনে আওয়ামী লীগের সঙ্গে একযোগে কাজ করবে। আপনারা (বিএনপি নেতারা) যে কথাটি বলতে সাহস পান না সেই জয় বাংলা বলেই মোদি তার বক্তব্য শেষ করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘যারা পেট্রোলবোমা ছুঁড়ে মানুষকে জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা করে তারা কোনোদিন মানুষের জন্য রাজনীতি করে না। তারা হচ্ছে মানুষের জন্য আতঙ্ক। আর এদের বিরুদ্ধে আমাদের সোচ্চার হতে হবে।’

সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ও অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালক অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, আওয়ামী লীগ নেতা এমএ করিম, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।