মেইন ম্যেনু

বিচার বিভাগ কী আসলেই স্বাধীন : মীর কাসেমের স্ত্রী

আপিল বিভাগে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মীর কাসেম আলীর রায়ের এক প্রতিক্রিয়ায় তার স্ত্রী খোন্দকার আয়েশা খাতুন বলেছেন, বিভিন্ন মন্ত্রীর প্রকাশ্যে প্রধান বিচারপতিকে হুমকি, ধামকি এবং রায় প্রকাশের পূর্ব মুহূর্তে আদালত কর্তৃক বার বার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন আমাদের মনে একটাই প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে, যা কি না সারাদেশের জনগণের মনেও প্রশ্ন, তা হলো ‘বিচার বিভাগ কী আসলেই স্বাধীন?’।

মঙ্গলবার আপিল বিভাগে মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে রায় প্রকাশের পর এক বিবৃতিতে খোন্দকার আয়েশা খাতুন এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা ন্যায় বিচার থেকে বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছি। মীর কাসেম আলী বিরুদ্ধে যে সাক্ষ্য প্রমাণ আনা হয়েছে, তা কোনভাবেই অপরাধ প্রমাণে যথেষ্ট নয়। যা মামলার যুক্তিতর্ক চলার সময়ে প্রধান বিচারপতির বিভিন্ন মন্তব্য থেকে প্রতিয়মান হয়েছে। সুতরাং মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখার মত কোনো আইনগত ভিত্তি নেই।

পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর রিভিউ আবেদন করা হবে বলেও বিবিৃতিতে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদের সদস্য মীর কাসেম আলীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

মঙ্গলবার সকালে প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন। বেঞ্চের অপর সদস্যরা হলেন- বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী, বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মোহাম্মদ বজলুর রহমান।