মেইন ম্যেনু

বিতর্কিত ‘রাধে মা’ ছয় পুরুষকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করেছিলেন?

স্বঘোষিত রাধে মা-র বিরুদ্ধে নয়া অভিযোগ উঠল রবিবার। রাধে মা নাকি ছয়জন ব্যক্তিকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দিয়েছিলেন। গুজরাতের কুচ এলাকায় তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঠিক কী অভিযোগ রাধে মা-এর বিরুদ্ধে?

অভিযোগ, ওই ছয় ব্যক্তি তাদের সমস্ত সম্পত্তি রাধে মা-এর নামে লিখে দিতে বাধ্য হন। অভিযোগটি মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনারকেও পাঠানো হয়েছে।

মুম্বই পুলিশ সূত্রে খবর, রাধে মা-এর বিরুদ্ধে সমন জারি করা হতে পারে। ডিসিপি ধনঞ্জয় কুলকার্ণি জানিয়েছেন, “রাধে মা গত কয়েকদিন মুম্বইয়ে ছিলেন না। গতকালই তিনি ফিরে এসেছেন। আমরা তাঁর বিরুদ্ধে সমন জারি করব প্রথমে। তারপর তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হতে পারে।”

স্বঘোষিত এই ধমঘগুরুর বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ এনেছেন ৩২ বছরের এক মহিলা। তাঁর অভিযোগ, রাধে মায়ের কথায় বিয়ের পর থেকে আজ পর্যন্ত শ্বশুরবাড়ির লোকেরা তাঁর উপর নিয়মিত পণ দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন। রাধে মায়ের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনেছেন ওই মহিলা। পুলিশ রাধে মা-সহ অভিযোগকারিনীর শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের বিরুদ্ধেও সমন জারি করবে বলে খবর।