মেইন ম্যেনু

বিদ্যুতের তারে থুতু ফেলে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা গেল যুবক

রাস্তায়, ট্রেনে-বাসে কিংবা হাঁটতে হাঁটতেই মুখ থেকে একগাদা থুতু ফেলার অভ্যাস অনেকেরই। ভারতীয়দের মধ্যে ভীষণভাবে প্রচলিত। খবর : টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

বাসস্ট্যান্ডের ওপর বা অফিসের এককোণে একটি পোস্টারে লেখা থাকে- ‌‘যত্রতত্র থুতু ফেলবেন না। সেই পোস্টারের নিচেই লাল রঙের পিচ আর থুতু ভরিয়ে তোলেন আমজনতা।

যত্রতত্র থুতু ফেলতে গিয়ে মারা গেলেন মহারাষ্ট্রের মালেগাঁওয়ের ইসমাইলপুর এলাকার বাসিন্দা মোহম্মদ ইয়াসিন সালিম আহমেদ।

ঘরের মধ্যে থেকেই রাস্তায় থুতু ফেলে বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হয়ে মারা গেলেন ২১ বছর বয়সী সালিম। শনিবার বিকেলে অফিসের টি-ব্রেক চলাকালীন নিজের মুখ ধুতে গিয়েছিলেন সালিম।

অজান্তেই হোক বা নিজ স্বভাবের দোষেই বিদ্যুতের তারে থুতু ফেলেন তিনি। সেই সময়ই বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ঘটে টেক্সটাইল কারখানার এই কর্মীর।

ইয়াসিনের নিথর দেহ পড়ে থাকলে সন্দেহ হয় অন্যান্য কর্মীদের। সালিম যে কারখানায় কাজ করতেন, সেই কারখানাতেই কর্মী ছিলেন তার দাদা মোহাম্মদ আমিন।

তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সালিমকে মৃত বলে ঘোষণা করেন হাসপাতালের চিকিত্‍সক।
গোটা ঘটনাটি অপমৃত্যু বলে রেজিস্টার করেছে পুলিশ।